• বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২০, ১১:৩৫ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

বাগেরহাটে বন্ধুকযুদ্ধে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নিহত

আবু হানিফ, বাগেরহাট
প্রকাশ হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ৩০ জুলাই ২০২০ | ৮:০৮ pm
                             
                                 

বাগেরহাটে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৬ এর সাথে বন্ধুকযুদ্ধে খুলণা জেলার রুপসা উপজেলার নৈহাটি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল ওরফে মিনা কামাল (৫৬) নিহত হয়েছেন।বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) ভোরে জেলার রামপাল উপজেলার খুলণা-মোংলা মহাসড়কের বাবুরবাড়ি এলাকায় বন্ধুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।পরে রামপাল উপজেলার ঝনঝনিয়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখানের ডাক্তাররা কামালের মৃত্যু নিশ্চিত করে।রামপাল থানা পুলিশ হাসপাতাল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠায়।

নিহত মোস্তফা কামাল ওরফে মিনা কামাল রুপসা উপজেলার মিনহাজ উদ্দিনের ছেলে এবং রুপসা উপজেলার নৈহাটি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এবং যুবলীগের নেতা ছিলেন।কামালের বিরুদ্ধে ৯টি হত্যাসহ ২৫টির উপরে বিভিন্ন অপরাধের মামলা রয়েছে।

খুলনা র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল রওশানুল ফিরোজ জানান,মাদক ব্যবসায়ীদের গোপন বৈঠকের খবর পেয়ে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাছে বাবুর বাড়ি এলাকায় গেলে তারা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়।আত্মরক্ষার জন্য র‌্যাবও গুলি চালায়।এক পয্যায়ে সসস্ত্র মাদক কারবারিরা পিছু হটলে ঘটনাস্থলে গুরুত্বর আহত অবস্থায় মিনা কামালকে পাওয়া যায়।পরে মিনা কামালকে রামপালের ঝনঝনিয়া হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার মৃত্যু ঘোষনা করেন।পরে ঘটনাস্থল তল্লাসি করে একটি বিদেশী পিস্তল ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশি পিস্তল,৫০০ পিস ইয়াবা,একটি চাকু ও নগদ ৬৭ হাজার টাকা উদ্ধার করে র‌্যাব সদস্যরা।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন,আমরা ঝনঝনিয়া হাসপাতাল থেকে কামালের মরদেহ উদ্ধার করেছি।সুরহাতল রিপোর্ট শেষে ময়না তদন্তের জন্য মরদেহ বাগেরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছি। র‌্যাবের পক্ষ থেকে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।মামলা দায়ের হলে আরও বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানান তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 3
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর