• মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
শিগগির বাংলাদেশে ‘কোভ্যাক্সিন’র ট্রায়াল চালাতে চায় ভারত সাতক্ষীরায় জুলাই মাসে করোনায় ১৫, উপসর্গে ২০৫ জনের মৃত্যু গোবিন্দগঞ্জ ছিনতাইকৃত মহিষ আক্কেলপুরে উদ্ধার রবিউল এবার পেল সুচিকিৎসার ব্যবস্থা, সমাজসেবা থেকে পেল আর্থিক সহায়তা বোয়ালমারীতে জেলা পরিষদ বানিজ্যিক ভবনের কক্ষ থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার সুন্দরগঞ্জে টিকা সম্প্রসারণে অবহিতকরণ সভা মাধবপুরে কঠোর নজরদারিতে এসিল্যান্ড অভিযানে ১৩টি মামলায় জরিমানা সেই পরিত্যক্ত ঘরেই মারা গেলেন জনপ্রিয় শিক্ষক যত্রতত্র ফেলা হচ্ছে বর্জ্য, হুমকির মুখে পরিবেশ বকশীগঞ্জে ৩৩৩ ফোন ও খুদে বার্তা পাঠিয়ে খাদ্য সহায়তা পেয়েছেন ১৪০০ পরিবার!

ইসরায়েলের ৪টি ড্রোন ভূপাতিতের দাবি হিজবুল্লাহ’র

আন্তর্জাতিক ডেক্স
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ২ জুলাই ২০২১ | ৯:৩৭ pm
                             
                                 

ইসরায়েলের চারটি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করেছে লেবাননের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহ। বৃহস্পতিবার লেবালনের রাজধানী বৈরুতের মাদি এলাকায় ড্রোনগুলো ভূপাতিত করা হয় বলে দাবি তাদের।

ইরাকের সাবেরিন নিউজ চ্যানেলের তথ্য মতে, বৃহস্পতিবার সাগরের দিক থেকে লেবাননের রাজধানী বৈরুতের মাদি এলাকায় প্রবেশের চেষ্টাকালে ড্রোনগুলোকে প্রতিরোধ করে হিজবুল্লাহ। এরপর চারটি ইসরায়েলি ড্রোন ধ্বংস করে দেয় তারা।

ইসরায়েল প্রায়ই লেবাননের জল, স্থল ও আকাশ সীমা লঙ্ঘন করে। আন্তর্জাতিক সব আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে লেবাননের আকাশ ব্যবহার করে এর আগে সিরিয়াতেও হামলা চালিয়েছে তেল আবিব।

ইসরায়েলের এমন আচরণের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক জনমত গড়ার চেষ্টা করে যাচ্ছে লেবানন। জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোকে ইসরায়েলি আগ্রাসনের বিষয়ে অবহিত করার পাশাপাশি আগ্রাসন ঠেকাতে পদক্ষেপের দাবি জানিয়ে আসছে দেশটি।

২০০৬ সালের ৩৩ দিনের যুদ্ধের পর জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে অনুমোদিত ১৭০১ নম্বর ইশতেহারে বলা হয়েছে, ইসরায়েল লেবাননের বিরুদ্ধে কোনো বিদ্বেষমূলক তৎপরতা চালাবে না। কিন্তু ইসরায়েল কোনো আন্তর্জাতিক আইন ও ইশতেহারকেই মেনে চলছে না।

এদিকে সম্প্রতি লেবাননের হিজবুল্লাহর সঙ্গে গোপন বৈঠক করেছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো বলছে, বৈঠকে আলোচনার বিষয়বস্তু ছিল গাজা ও লেবানন ইস্যু। হামাসের শীর্ষনেতা ইসমাইল হানিয়া ২৭ জুন লেবানন পৌঁছান। সেখানে তিনি লেবাননের প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন ও স্পিকার নাভিহ বেররির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

অনেকের মতে গত মে মাসে গাজায় ইসরায়েলের সঙ্গে লড়াইয়ে হামাসকে সহযোগিতা করেছিল হিজবুল্লাহ। গাজায় গত ১০ থেকে ২১ মে পর্যন্ত টানা ১১ দিনের সংঘাতে প্রায় ২৫৬ ফিলিস্তিনি নিহত হয়। এর মধ্যে ৬৬ জনই শিশু। অপরদিকে দুই হাজারের বেশি মানুষ আহত হয়েছে। এছাড়া ইসরায়েলে রকেট হামলায় ১২ জন নিহত হয়েছে। তবে হতাহতদের মধ্যে বেশিরভাগই সাধারণ নাগরিক।

সূত্র: পার্সটুডে

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর