• বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৫:৫৮ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

ভূরুঙ্গামারীতে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেল দু’টি পরিবার

মাসুদ আল করিম, ভুরুঙ্গামারী(কুড়িগ্রাম)
প্রকাশ হয়েছে : শনিবার, ৭ নভেম্বর ২০২০ | ৩:৫৯ pm
                             
                                 

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে স্বেচ্ছাসেবী তরুণদের উদ্যোগে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেয়েছে দু’টি পরিবার। শুক্রবার ওই দুই পরিবারকে দু’টি টিন সেড ঘর হস্তান্তর করে ভূরুঙ্গামারী ফাউন্ডেশন নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।
পরিবাব দু’টির উপার্জনক্ষম ব্যক্তি দু’জন বিধবা। তাদের একজন তিন সন্তানের জননী বিধবা শামসুন্নাহার বেগমের বাড়ি ছিল চর ভূরুঙ্গামারী ইউনিয়নের চর ইসলামপুর গ্রামে। দুই বছর আগে স্বামী মারা গেছে। তার সামান্য আয় দিয়ে চলে ৪ জনের সংসার। এবছর দুধকুমার নদের ভাঙনে নদী গর্ভে বিলিন হয়ে গেছে বসত বাড়ি। আশ্রয় নিয়েছেন ভাইয়ের বাড়িতে।
অপরজন ভূরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়নের বাগভান্ডার গ্রামের দুই সন্তানের জননী বিধবা মোছাঃ লুৎফা বেগম। মানসিক ভারসাম্যহীন নাতি ও তার এক ছেলেকে নিয়ে একটি জরাজীর্ণ ঘরে থাকেন। অন্যের বাড়িতে কাজ করে যা পান তাই দিয়ে কোনমতে চলে সংসার। অর্থের অভাবে ঘরটি মেরামত করতে পাচ্ছিলেন না লুৎফা বেগম।
হতদরিদ্র এই দুই নারীর মুখে হাসি ফোটাতে তাদেরকে দশ হাত বিশিষ্ট একটি করে টিন সেড ঘর নির্মাণ করে দিয়েছে ভূরুঙ্গামারী ফাউন্ডেশন নামের তরুণদের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।
ভূরুঙ্গামারী ফাউন্ডেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক হেদায়েতুল ইসলাম খান রোমান জানান, প্রাথমিক পর্যায়ে দশজন ঘর পাচ্ছেন। পর্যায়ক্রমে উপজেলার গৃহহীন পরিবারকে আরো ঘর নির্মাণ করে দেয়া হবে। সংগঠনের সদস্যরা স্বপ্ন দেখে উপজেলার কেউ গৃহহীন থাকবে না। সমাজের বিত্তবানরা চাইলে এই উদ্যোগে সামিল হতে পারেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 11
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর