• রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪২ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম

গৌরীপুরে হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

ওবায়দুর রহমান, গৌরিপুর, ময়মনসিংহ
প্রকাশ হয়েছে : সোমবার, ৫ এপ্রিল ২০২১ | ৮:০৬ pm
                             
                                 

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে রোববার বিকালে হঠাৎ কালবৈশাখীর ঝড়ের সময় গরম বাতাস হালকা বৃষ্টি, কোন কোন জায়গায় শিলাবৃষ্টি শুরু হয়, এই গরম বাতাসের ফলে হাইব্রিড জাতের বোরো জমির ধানের শীষ সাদা হয়ে গেছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, মাওহা ইউনিয়নের তাঁতীরপায়া গ্রামের মৃত আব্দুল খালেকের পুত্র কৃষক আজিজুর রহমান জানান, গতকাল রোববার বিকালে থেকে শুরু হওয়া কালবৈশাখীর গরম বাতাসে তাদের জমির ধান গাছের ছড়া সাদা হয়ে গিয়েছে। মাওহা গ্রামের কৃষক মোজাম্মেল হোসেন জানান, দক্ষিণা গরম বাতাসে হাইব্রিড জাতের ধানের ছড়া সাদা হয়ে গিয়েছে। এ সময় তিনি আরো সরকারের সহযোগিতা কামনা করেছেন। কড়েহা লোনাপাড়া গ্রামের কৃষক শাহজাহান কবির জানান, আমার জমি সহ মাওহা ইউনিয়নের মাওহা, কড়েহা নহাটা, তাঁতীরপায়া, কিল্লাতাজপুর, রামকৃষ্ণপুর গ্রামের দুই থেকে তিন শতাধিক কৃষকের হাইব্রিড ধানের শীষ সাদা হয়ে গিয়েছে। এ ছাড়াও আরো অনেকেই জানান, রোববার বিকাল থেকে শুরু হয়ে রাত পর্যন্ত চলা কালবৈশাখী ঝড়ের সময় গরম বাতাসে হাইব্রিড জাতের ধানের শীষ সাদা হয়ে গেছে। এতে করে কৃষক ভাইদের মাঝে একটি হাহাকার সৃষ্টি হয়েছে এবং কৃষক বড় ধরনের ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। এ বিষয়ে সোমবার উপজেলা কৃষি অফিসার লুৎফুন্নাহার লিপি জানান, উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়নের উপর দিয়ে ভয়ে যাওয়া প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে ক্ষতি হয়েছে, বিষয়টি আমাদের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।
উল্লেখ্য, গৌরীপুর উপজেলা কৃষি অফিসসূত্রে জানা গেছে, উপজেলায় চলতি বোরো মৌসুমে ১০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভাসহ ২০ হাজার ৬শ ১০হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষ করা হয়েছিল যা গত বছরের তুলনায় বেশি। যা পূর্বের বছরগুলোর তুলনায় বেশি ফলনের লক্ষ্যমাত্রা ছিলো কিন্তুএ দূর্যোগের কারণে সে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ না হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 1
    Share


এই বিভাগের আরো খবর