• রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪৫ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম

ক্রিকেটার নাসুম আহমেদ সুনামগঞ্জে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, হাওরাঞ্চল, সুনামগঞ্জ
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ৬ আগস্ট ২০২১ | ৪:৩৬ pm
                             
                                 

বাংলাদেশের নবাগত আলোচিত ক্রিকেটার নাসুম আহমেদ তার নিজ জেলা সুনামগঞ্জে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন। কিন্তু কেন তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এনিয়ে শুরু হয়েছে ব্যাপাক তোলপাড়। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অস্টেলিয়া বিপক্ষে লড়াই করে ওই ম্যাচের সেরা খেলোয়ার হিসেবে নাসুম আহমেদ ঘোষিত হওয়ার পর থেকে পুরো জেলা জুড়ে আলোচনা ও সমালোচনার উঠে।
এব্যাপারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে- আলোচিত ক্রিকেটার নাসুম আহমেদের গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার মধুরাপুর। কিন্তু স্বপরিবারে অবস্থান করে সিলেটে। তবে নাসুম আহমেদ ছিল একজন ক্রিকেট পাগল। তাই স্বপ্ন পূরণের জন্য ২০০৯ সালে সুনামগঞ্জ জেলা শহরে ফিরে আসে ক্রিকেট পাগল নাসুম আহমেদ। ওই সময় জেলার অন্যতম ঐতিহ্যবাহী ক্রিকেট ক্লাব প্যারামাউন্টে নাসুমকে সুযোগ দেওয়া হয়। এরপর ২০১৪ সালে পর্যন্ত তিনি ওই ক্লাবের সক্রিয় সদস্য হয়ে নিয়মিত খেলেছেন। কিন্তু বেশি লাভের আশায় ক্রিকেটার নাসুম আহমেদ সুনামগঞ্জ ছেড়ে সিলেট জেলা দলের হয়ে খেলা শুরু হরে। আর এসব নানান কারণে ২০১৫ সালে সুনামগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট কমিটি থেকে নাসুম আহমেদকে বহিস্কার করে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষনা করে। এমতাবস্থায় ২০২০ সালে জেলা ক্রিকেট দলের হয়ে খেলতে আবার এসেছিল। কিন্তু তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। এরপর প্রায় ১ যুগ ধরে সিলেট জেলা দলের খেলোয়ার হয়েই খেলছিল ক্রিকেটার নাসুম আহমেদ।
এব্যাপারে জেলার প্যারামাউন্ট ক্রিকেট ক্লাবের খেলোয়ার আশিক মিয়া বলেন- আমাদের ঐতিহ্যবাহী ক্রিকেট ক্লাবের বাহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে স্থান পেয়েছিলেন নাসুম। তিনি ব্যাটিং বোলিংয়ে সমান নৈপূন্য দেখিয়েছেন। তার খেলা দেখে আমরা সবাই মুগ্ধ হয়েছি। তিনি ছিলেন আমাদের সেরা খেলোয়ার।
জেলার ঐতিহ্যবাহী প্যারামাউন্ট ক্রিকেট ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এনাম আহমদ বলেন- ক্রিকেটার নাসুম আহমেদকে আজ সারা বিশ^ চেনে অফস্পিনার হিসেবে। কিন্তু আমাদের ক্লাবে সে বাহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে সুযোগ পেয়েছিল। পরে যখন ক্রিকেট লিগ শুরু হয় তখন সে জানায় আমাদের জেলা টিমে সুযোগ সুবিধা কম। তাই স্বপ্ন পূরণের জন্য সে সিলেট জেলার হয়ে খেলা শুরু করে। আর এঘটনায় ক্রীড়া সংস্থা আজীবনের জন্য নাসুমকে নিষিদ্ধ করায় আমি তার প্রতিবাদ করেছিলাম।
সুনামগঞ্জ জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান ইমদাদ রেজা চৌধুরী এব্যাপারে সাংবাদিকদের বলেন- তৎকালীন জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যনির্বাহী কমিটি নাসুম আহমেদকে বহিস্কারের অনুমোদন দেয়। আর এই বিষয়টি আমার জানা ছিল না। আগামী মিটিংয়ে আমরা বৈঠক করে তার বহিস্কারাদেশ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেব।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর