• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫৪ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

২১ জুন লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচন

উন্নয়ন প্রকল্পের নাম মোবাইলে মেসেজ করবেন বাকিটা আমার দায়িত্ব…সংসদ সদস্য প্রার্থী এডভোকেট নয়ন

জেলা সংবাদদাতা
প্রকাশ হয়েছে : শনিবার, ১২ জুন ২০২১ | ৩:৪৮ pm
                             
                                 

লক্ষ্মীপুর-২ (সদর ও রায়পুর) আসনের কোন উন্নয়নমূলক কাজের জন্য জনগণকে আর এমপির দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হবে না। মোবাইলে মেসেজ (এসএমএস) দিয়ে প্রকল্পের নাম পাঠিয়ে দিবেন। বাকিটা আমার দায়িত্ব। কিভাবে দ্রুত সময়ে সেই প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে সে ব্যাপারে আমিই ভাববো। এমপি নির্বাচিত হলে জনগণের সেবায় এভাবেই নিয়োজিত থাকবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের সংসদ সদস্য প্রার্থী এডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন। সম্প্রতি লক্ষ্মীপুর সদর ও রায়পুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে নির্বাচনী সভায় তিনি জনগণের উদ্দেশ্যে এসব বলেন।
তিনি আরো বলেন, লক্ষ্মীপুর-২ আসনে উন্নয়নের দিক থেকে অবহেলিত। দীর্ঘদিন এমপি না থাকায় এ আসনে কোন উন্নয়ন হয়নি। সম্ভাবনাময় এ এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করা সম্ভব। এ আসনে সরকারি বরাদ্ধের বাহিরে বিশেষ বরাদ্ধের মাধ্যমে উন্নয়ন করে মডেল আসনে রুপান্তর সম্ভব। আগামী ২১ তারিখ নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আমাকে জয়ী করলে এ আসনকে মডেল আসনে রুপান্তর করার চ্যালেঞ্জ বাস্তবায়ন করবো।
এডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন বিভিন্ন সভায় বলেন, এ আসনের বিভিন্ন এলাকার রাস্তাঘাট উন্নয়ন, ধর্মীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নসহ যাবতীয় উন্নয়নমূলক কাজের জন্য আমাকে শুধুমাত্র মোবাইলে জানাবেন। আমি দ্রুত এর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এসব উন্নয়নমূলক কাজে কোন প্রকার কমিশন বা আর্থিক লেনদেন করা হবেনা। কেউ যদি অর্থের লেনদেন করে তাহলে আমাকে জানাবেন আমি তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। এছাড়াও মানুষের জন্য গভীর নলকূপ স্থাপন কাজে জনগণকে নলকূপ বাবদ সরকারি ফি দিতে হবেনা। আমি ব্যক্তিগত ভাবে সে ফি জমা দিবো। এজন্য শুধু জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন।
তিনি বলেন, আমি সংসদ অধিবেশন ছাড়া সবসময় এলাকায় থাকবো। এলাকার যে কোন সমস্যা সমাধানের জন্য বা উন্নয়নের জন্য আমি ২৪ ঘন্টা জনগণের সাথেই আছি।
এডভোকেট নয়ন বলেন, বর্তমান সরকার শতভাগ বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রুপান্তর করতে যে ভাবে উন্নয়ন করে যাচ্ছে যা অতীতে কোন সরকার করতে পারেনি। এ উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আমাকে এমপি নির্বাচিত করে সংসদে গিয়ে এ অঞ্চলের দু:খ দুর্দশার কথা বলার সুযোগ করে দেওয়ার আহবান জানান। এ অঞ্চলের বেশিরভাগ ইউনিয়নের রাস্তাঘাট ভাঙ্গা। এসব রাস্তা সংস্কার করা ও নতুন রাস্তাগুলে পাকা করা জরুরী। এছাড়াও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অর্থ বরাদ্ধ দিয়ে জনকল্যানমূলক কাজ করার ব্যবস্থা করাও জরুরী। ইনশাআল্লাহ আমি এমপি নির্বাচিত হলে এসব কাজ দ্রুত করবো। দীর্ঘদিনের অবহেলিত আসন যাতে সারা দেশের মধ্যে মডেল আসনে রুপান্তর হয় সেজন্য সর্বাত্মক কাজ করবো।
এসময় নির্বাচনী সভায় জেলা আওয়ামী লীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ, ইউনিয়ন ও কেন্দ্র কমিটির নেতৃবৃন্দ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, আগামী ২১ জুন শুন্য হওয়া লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত আসনে সাবেক সংসদ সদস্য শহীদ ইসলাম পাপুল কুয়েতের আদালতে সাজাপ্রাপ্ত হয়ে জেলে যাওয়ার কারণে এ আসনটি শুণ্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। এ আসনে নৌকা প্রতীকে এডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন ও লাঙ্গল প্রতীকে ফয়েজ উল্যা শিপন প্রতিদ্বন্দ্রিতা করছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর