• বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৯:৩৪ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লক্ষ্মীপুরে জেলা পরিষদের কেক কাটা ও আলোচনা সভা মণিরামপুরের সেরা ষাঁড়ের দাম ১৫ লাখ টাকা বাংলাদেশের টিকা উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী গৌরীপুর আওয়ামীলীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বিভিন্ন কর্মসুচীর মধ্যে দিয়ে বাগেরহাটে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে হতদরিদ্রদের মাঝে নগদ টাকা বিতরণ ফুলবাড়িয়ায় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত মণিরামপুরে কঠোর লকডাউন: ১৩ দোকানির জরিমানা শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের দ্বি-তল ভবন উদ্বোধন করলেন এমপি স্বপন পাঁচ হাসপাতালে দৌড়াদৌড়ি, শ্বাসকষ্টে শিক্ষকের মৃত্যু

চট্টগ্রাম কাস্টমসে নিলামে উঠছে জাপানি গাড়িসহ ১৪৬ লট পণ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ হয়েছে : শনিবার, ২০ মার্চ ২০২১ | ৪:০২ pm
                             
                                 

জাপানে তৈরি টয়োটা ব্রান্ডের ২০১২ সালের এক্স ফাইন্ডার মডেলের ১টি গাড়িসহ মোট ১৪৬ লট পণ্য নিলামে বিক্রির প্রক্রিয়া শুরু করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউস কর্তৃপক্ষ। এছাড়া নিলামে অন্যান্য লটের মধ্যে আছে প্রায় সাড়ে ৮২ টন বিভিন্ন ধরণের কাপড়। বছরের এই ৫ম নিলামটি আগামী ২১ মার্চ চট্টগ্রাম ও ঢাকায় একযোগে অনুষ্ঠিত হবে। এই মধ্যে গত রবিবার থেকে নিলামের ক্যাটালগ ও দরপত্র বিক্রির কার্যক্রম শুরু করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউস।

নিলামের ক্যাটালগ থেকে জানা যায়, মোট ১৪৬ লটের পণ্যের নিলামে আছে ফেব্রিক, স্ক্র্যাপ, কেমিক্যাল, কম্বলের কাপড়, নির্মান সামগ্রী, মেশিনারি, এলইডি মনিটর, এলইডি টিউবলাইট, স্টোন টাইলস, ফার্মাসিক্যাল ম্যাটেরিয়ালস, ক্যালেন্ডার ও ডায়েরি, ব্যাটারি, মোটর সাইকেল পার্টস, স্ট্যান্ড ও ওয়াল ফ্যান, কসমেটিকস, কমপ্রেসার, এলমুনিয়ামের দরজা জানালা, শিশুদের ব্যবহার সামগ্রী, লাঙ্গল, মধু জিপসাম পাউডার, পিভিসি ফ্লোর ম্যাট, বিদ্যুতিক মিটার, পুরুষের জুতা ইত্যাদি। এসব পণ্যের মধ্যে অনেকগুলো দীর্ঘদিন পড়ে থাকায় মরচে পড়ে গেছে যা স্ক্রাপ হিসেবেও বিক্রি করা হবে। ‘যেখানে যে অবস্থায় আছে সে ভিত্তিতে এবং শর্তযুক্ত পণ্যের ক্ষেত্রে শর্ত প্রতিপালন (রিট মামলা নিষ্পত্তিসহ) সাপেক্ষে’ নিলামে এসব পণ্য বিক্রি হবে।

আগামী ২১ মার্চ রবিবার দুপুর আড়াইটায় ঢাকা ও চট্টগ্রামে একযোগে এই নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। আজ ২০ মার্চ পর্যন্ত অফিস চলাকালীন সময় পর্যন্ত এই নিলামের ক্যাটালগ ও দরপত্র সংগ্রহ করা যাবে। সরকারি নিলাম পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স কে এম কর্পোরেশন এই নিলাম পরিচালনা করছে। চট্টগ্রামের দরদাতারা অফিস চলাকালীন সময়ে মেসার্স কে এম কর্পোরেশন প্রধান কার্যালয়, ৩০৬, স্ট্যান্ড রোড, মাঝিরঘাট, চট্টগ্রাম এবং বন্দর স্টেডিয়াম এর বিপরীতে কাস্টম অকশন শেড থেকে দরপত্র ও ক্যাটালগ সংগ্রহ করতে পারবে। এছাড়া ঢাকার দরদাতারা ৮০, মতিঝিল বাণিজ্যিক এলাকার ঠিকানা থেকেও ক্যাটালগ ও দরপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন। জমা দেওয়া যাবে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের নিলাম শাখায় ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে। এছাড়া ঢাকার কাকরাইলে অবস্থিত শুল্ক আবগারি ও ভ্যাট কমিশনারেটের যুগ্ম-কমিশনার (সদর) এর দপ্তরেও দরপত্র জমা দিতে পারবেন।

সেই ক্যাটালগ ও দরপত্র নিলামের দিন অর্থাৎ ২১ মার্চ দুপুর ২টার মধ্যে জমা দেওয়া যাবে। এর ত্রিশ মিনিট পর দুপুর আড়াইটায় নিলাম কার্যক্রম শুরু হবে।

ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান যে কেউ এই নিলামে অংশগ্রহণ করতে পারবে। নিলামে অংশগ্রহণ করতে প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে দরপত্রের সাথে হালনাগাদ করা ট্রেড লাইসেন্স, ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন সনদ, টিন সার্টিফিকেটের কপি দাখিল করতে হবে। এছাড়া ব্যক্তির ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি এবং হালনাগাদ টিন সার্টিফিকেটের কপি অবশ্যই দাখিল করতে হবে। এছাড়া ক্যাটালগে বর্ণিত নিলাম সংক্রান্ত সকল শর্তাদি যথাযথভাবে পালন করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর