• বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০১:১৮ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লক্ষ্মীপুরে বৃক্ষরোপণ ও ঢেউটিন বিতরণ কেক কাটা ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গৌরীপুরে এতিম শিশুদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ ধর্মপাশায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিনামুল্যে মাস্ক বিতরণ রাজারহাটে সেনাবাহিনীর নিজস্ব রেশন দিয়ে সুস্থ-অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ডাসার উপজেলা প্রেসক্লাবে মিজান সভাপতি, জাফরুল সম্পাদক নির্বাচিত ঘোড়াঘাটে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে স্বেচ্ছাসেবকলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন বকশীগঞ্জে করোনার সংক্রমণ রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম অব্যাহত শ্যামনগরে অর্ধলক্ষাধিক টাকার চিংড়ী বিনষ্ট

ভূরুঙ্গামারীর সীমান্ত রাজার ওজন ২৫ মণ

মাসুদ আল করিম, ভুরুঙ্গামারী(কুড়িগ্রাম)
প্রকাশ হয়েছে : রবিবার, ১১ জুলাই ২০২১ | ৯:৩৪ pm
                             
                                 

ভূরুঙ্গামারীর সীমান্তবর্তী এলাকায় জন্ম ও বেড়ে ওঠা একটি ষাঁড় এলাকার অন্য সব ষাঁড়ের চেয়ে আকারে বেশ বড় হওয়ায় অনেকে ষাঁড়টিকে ‘সীমান্তরাজা’ বলছেন। কোরবানি উপলক্ষে বিক্রির জন্য ছাব্বিশ মাস যাবত ষাঁড়টি লালন-পালন করছেন সর্দার রমজান আলী। ষাঁড়টির ওজন প্রায় ২৫ মণ। সীমান্ত এলাকায় বিশাল আকৃতির ষাঁড়টি জল্পনা-কল্পনার জন্ম দিয়েছে। ষাঁড়টি দেখতে প্রতিদিন ভিড় করছেন স্থানীয়রা। মালিক ষাঁড়টির দাম চাচ্ছেন ৪ লাখ টাকা।
ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাথরডুবী ইউনিয়নের চাঁদনী বাজার এলাকার সর্দার রমজান আলী ইট ভাটায় কাজ করার পাশাপাশি আট বছর আগে নিজ বাড়িতে গরুর খামার গড়ে তোলেন। পাঁচ বছর আগে খামারের জন্য তিনি ফ্রিজিয়ান জাতের একটি গাভী কেনেন । সেই গাভী থেকেই জন্ম হয় ‘সীমান্ত রাজা’র।

রমজান আলী জানান, প্রায় ছাব্বিশ মাস যাবত সন্তান স্নেহে ষাঁড়টিকে লালন-পালন করছেন। ষাঁড়টির বর্তমান ওজন হয়েছে প্রায় ২৫ মণ। উচ্চতা ৫ ফুটের মতো। দৈর্ঘ্য ৭ ফুটের বেশি। তিনি আরো জানান ষাঁড়টিকে গমের ভুসি, খুদের ভাত, শুকনা খড় খাওয়ানো হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, ফ্রিজিয়ান জাতের ষাঁড়টি এবছর উপজেল সবচেয়ে বড় গরু। প্রতিদিন দূরদূরান্ত থেকে লোকজন ষাঁড়টিকে দেখতে রমজান আলীর বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছেন।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা শামীমা আক্তার জানান, ঈদ উল আযহা উপলক্ষে উপজেলার খামারিরা যেসব গরু মোটাতাজাকরণ করেছেন সেগুলোর নিয়মিত খোঁজ রাখা হচ্ছে। তাদের বিভিন্ন পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। করোনা মহামারীর কারনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনলাইন কোরবানির হাট ভূরুঙ্গামারী নামের একটি পেজ চালু করে সেখানে কোরবানির পশুর ছবি, ওজন, রঙ্গ ও মূল্য সহজ বিভিন্ন তথ্য প্রদান করে অনলাইনে গরু কেনাবেচার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর