• বৃহস্পতিবার, ০৬ অগাস্ট ২০২০, ০৬:১৭ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

শ্যামনগরে ৮৫ বছর বয়সে বিয়ে করে আলোড়ন সৃষ্টি করলেন রবীন্দ্র দদু

রনজিৎ বর্মন, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা)
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ৩১ জুলাই ২০২০ | ৬:৪২ pm
                             
                                 

রবীন্দ্র নাথ ৮৫ বছর বয়সে বিয়ে করে এলাকায় আলোড়ন সৃষ্টি করলেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার বিয়ের ছবি,বর বেশের ছবি,প্রায় ৪০ বছর বছর বয়স্ক স্ত্রীর ছবি ভাইরাল হতে চলেছে। বিশেষ করে যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার নুরনগর ইউনিয়নের নুরনগর গ্রামে। গত বুধবার গভীর রাতে মৃত শিবনাথের বড় পুত্র সাধু বাবা নামে পরিচিত রবীন্দ্র দেবনাথ (৮৫) সকলকে বিস্ময় সৃষ্টি করে সকল বাঁধা বিপত্তি পিছনে ফেলে একই উপজেলার আস্থা খালি গ্রামের মৃত শচীন্দ্র গায়েনের বড় কন্য অনিমা রানী(৩৭) এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন।

রবীন্দ্রনাথ এর চেহারা ছিল মুখে দাঁড়ি,গোঁফ ভর্তি চুল। সকাল হতেই নুরনগর বাজারের প্রায় সকল হিন্দু সম্প্রদায়ের দোকানদের কপালে চন্দনের ফোঁটা ও ফুল দিয়ে আসত। যার ফলে তাকে সাধু বাবা নামে চিনত। বিয়ের আগে সেই চির চেনা রবীন্দ্র নাথ দাঁড়ি,চুল কেটে ক্লিন সেভ করে বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন।

এলাকার চায়ের দোকান,ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বা কোন জনসমাগম স্থানে মুখরোচক আলোচ্য বিষয় যে বয়সে নাতি , নাতনী, পুতি পুতনিদের নিয়ে খেলা করে সময় কাটানোর কথা সে বয়সে রবীন্দ্র দেবনাথ বিয়ে করে সকলকে অবাক করে দিলেন। এলাকার যুবকরা বলছেন বৃদ্ধ বয়সে দাদু রবীন্দ্র নাথ যুবকদেরকেও হার মানিয়ে বুঝিয়ে দিল বিয়ের কোন বয়স লাগে না।

স্থানীয় সাংবাদিক এস এম জাকির হোসেন জানান রবীন্দ্র নাথের বিগত ১৫ বছর পূর্বে স্ত্রী মারা যায়। তার চার কন্যা ও দুই পুত্র সন্তান রয়েছে। বাড়ীর আর্থিক অবস্থা বিশেষ ভাল না। বৃদ্ধ বয়সে তার পুত্র,পুত্র বধু বা অন্যান্য স্বজনরা অবহেলার চোখে দেখার জন্য শেষ বয়সে রবীন্দ্র নাথ এ রকম সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন বলে রবীন্দ্র নাথ জানিয়েছেন।

তবে এ বিবাহে কোন লোকসমাগম ছিল না । করোনা কালিন সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই বিবাহ কার্য হয়েছে বলে অনেকে মত প্রকাশ করেছেন। বিবাহের খবরটি এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 9
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর