• বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লক্ষ্মীপুরে জেলা পরিষদের কেক কাটা ও আলোচনা সভা মণিরামপুরের সেরা ষাঁড়ের দাম ১৫ লাখ টাকা বাংলাদেশের টিকা উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে : প্রধানমন্ত্রী গৌরীপুর আওয়ামীলীগের ৭২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত বিভিন্ন কর্মসুচীর মধ্যে দিয়ে বাগেরহাটে আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে হতদরিদ্রদের মাঝে নগদ টাকা বিতরণ ফুলবাড়িয়ায় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত মণিরামপুরে কঠোর লকডাউন: ১৩ দোকানির জরিমানা শাহজাদপুর প্রেসক্লাবের দ্বি-তল ভবন উদ্বোধন করলেন এমপি স্বপন পাঁচ হাসপাতালে দৌড়াদৌড়ি, শ্বাসকষ্টে শিক্ষকের মৃত্যু

অবশেষে মুক্ত আকাশে ডানা মেলল ১৬ শকুন

প্রদীপ রায় জিতু, দিনাজপুর
প্রকাশ হয়েছে : সোমবার, ৫ এপ্রিল ২০২১ | ৮:১২ pm
                             
                                 

প্রায় ৫ মাস বন্দী থাকার পর অবশেষে মুক্ত আকাশে ডানা মেলল ১৬ শকুন। রোববার বিকেল ৫টায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জে সিংড়া জাতীয় উদ্যান থেকে শকুনগুলোকে আনুষ্ঠানিকভাবে অবমুক্ত করা হয়। গত বছরের নভেম্বর মাসের শুরুতে সিংড়া জাতীয় উদ্যানের শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যা কেন্দ্রে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে উদ্ধার হওয়া বিপন্ন বিভিন্ন প্রজাতির শকুন আনা হয়। সেখানে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলার পর ১৬ শকুনকে ছেড়ে দেওয়া হলো মুক্ত আকাশে।

শকুন অবমুক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর সামাজিক বন বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা বশিরুল আল মামুন, সহকারী বন সংরক্ষক শাহিন কবির, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচার (আইইউসিএন) সহকারী প্রকল্প কর্মকর্তা সমীর সাহা, সিংড়া শালবন বিট কর্মকর্তা হরিপদ দেবনাথ প্রমুখ।

আইইউসিএন কর্মকর্তা সমীর সাহা জানান, সিংড়া শালবনের শকুন উদ্ধার ও পরিচর্যা কেন্দ্রটি উত্তরবঙ্গে প্রথম। ২০১৬ সালে প্রকল্পটির যাত্রা শুরু হয়। অনেক দূরের পথ পাড়ি দিয়ে আমাদের দেশে আসার সময় শকুনগুলো দুর্বল হয়ে লোকালয়ে নেমে যায়। এগুলোকে উদ্ধার করে বনবিভাগ এবং আইইউসিএন চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলে। জীবাণু মুক্ত করে পরে এদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

দিনাজপুর সামাজিক বন বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা বশিরুল আল মামুন জানান, নভেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে তীব্র শীতের কারণে হিমালয় থেকে আসা দেশের আটটি জেলা থেকে শকুন উদ্ধার করে চিকিৎসা সেবা দিয়ে সুস্থ করে তোলা হয়। বিপন্ন শকুন রক্ষায় আমরা চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। প্রকৃতির জন্য উপকারী এই পাখিটির অস্তিত্ব রক্ষায় প্রকল্পটি নেওয়া হয়েছে

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 1
    Share


এই বিভাগের আরো খবর