• শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০১ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
সুনামগঞ্জে নদীতে ডুবে নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ উদ্ধার ঘোড়াঘাটে প্রতিবন্ধী ভাতার চেক আটক রেখে টাকা দাবীর অভিযোগ ইসলামপুরে গ্রামীন জনপদে শহরের ছোঁয়া সন্ধ্যা নামতেই মেঠপথ আলোকিত মাদারীপুরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মাড়া গেলেন পুলিশ সদস্য শাল্লায় সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনার আরো এক আসামী গ্রেফতার মনোহরদীতে দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরন করেন এড. হারুনুর রশিদ বকশীগঞ্জে মাহে রমজান উপলক্ষে ব্যারিস্টার সামির ছাত্তারের উদ্যোগে নগদ অর্থ বিতরণ ইসলামপুরে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ আলফাডাঙ্গায় পুকুরে ডুবে পাঁচ বছরের শিশুর মৃত্যু সিরাজদিখানে লকডাউনে দোকান খোলায় ১৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

ইসলামপুরে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও ভূয়া সার্টিফিকেট ধারী শহিদুল্লাহ গ্রেফতার

লিয়াকত হোসাইন লায়ন, জামালপুর
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১ | ১২:০৩ pm
                             
                                 

 মুক্তিযোদ্ধার সন্তান পরিচয় সনদে উপসহকারী কৃষি অফিসার পদে চাকুরী করে সরকারী টাকা আত্মসাত ও ভূয়া বি.বি.এ সহ জাল সনদে চাকুরী’র প্রতারণা মামলায় পিবিআই তদন্তে প্রমাণিত হওয়ায় জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তান শহিদুল্লাহকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ।

জানা গেছে, আটককৃত ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তান ও ভূয়া সার্টিফিকেটধারী শহিদুল্লাহ উপজেলার চিনাডুলী ইউনিয়নের ডেবরাইপেচ গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে। শহিদুল্লাহ প্রথমে তার পিতার নামের সাথে মিল থাকা অন্যজনের মুক্তিযোদ্ধার পরিচয় দেখিয়ে উপসহকারী কৃষি অফিসার পদে চাকুরী নিয়ে গত ২৭/১২/২০১১ইং সালে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসে যোগদান করেন। এর প্রায় ৬বছর উক্ত ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের পরিচয় জানা জানি হলে প্রশাসনিক শাস্তির ভয়ে চাকুরী থেকে স্বেচ্ছায় অব্যাহতি চাইলে কর্তৃপক্ষ গত ১৮/০৯/২০১৮ইং তারিখে তাকে উক্ত চাকুরী থেকে অব্যাহতি দেন। চাকুরী ছেড়ে দিলেও প্রশাসনের চোঁখকে ফাঁকি দিয়ে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তানের পরিচয়ে ৬বছর প্রতারণা করে চাকুরী নিয়ে সরকারের প্রায় ১৮লক্ষ টাকা বেতন ভাতা তুলে আত্মসাত করে সে।

এখানেই শেষ নয় চাকুরী থেকে অব্যাহতি নিয়ে আবারও জালিয়াতি আশ্রয় নিয়ে ভূয়া শিক্ষাগত যোগ্যতার একই সনের দুই প্রতিষ্ঠানে ভূয়া ডিগ্রীর সার্টিফিকেট ও নিববন্ধন নেয় শহিদুল্লাহ। দারুল এহসান ও এশিয়ান ইউনিভারসিটি অব বাংলাদেশ থেকে পাশের সন ২০১২ইং একই শিক্ষাবর্ষে পাশ দেখিয়ে একই বিষয়ে দুইটি জাল সার্টিফিকেট সংগ্রহ করে । ওই জাল সার্টিফিকেটে বি.বি.এ অনার্স পাস দেখিয়ে বাবস্থাপনা বিষয়ে প্রভাষক (সাধারণ) ব্যবস্থানা পদে ইসলামপুরের ডেবরাইপেচ টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজে চাকুরী নেওয়ার পায়তারা করে। এসব বিষয় জানতে পেরে ডেবরাইপেচ টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজে কলেজের ম্যানেজমেন্ট প্রভাষক মোজাম্মেল হক বাদী হয়ে শহিল্লাহ ও তার পিতা ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদধারী আবুল কাশেমকে অভিযুক্ত করে জেলা সহকারী জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন । যার ইসলামপুর থানা পিটিশন মামলা নং-১৩২(১)২০। উক্ত মামলা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন পিবিআই তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ায় ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সনদ ও সার্টিফিকেট ধারী শহিদুল্লাহ ও তার পিতা আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি হয়। ১৯জানুয়ারী বুধবার বিকালে জামালপুর শহরের রেলগেট এলাকা থেকে পলাতক শহিদুল্লাহকে পুলিশ আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 4
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর