• সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০:৩৯ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

গাইবান্ধায় হত্যা মামলায় ৩ ভাইয়ের ফাঁসি

এম.হাসান, গাইবান্ধা
প্রকাশ হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর ২০২০ | ৬:৩৩ pm
                             
                                 

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের তিন ভাইকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত ।
বৃহস্পতিবার (০৮ অক্টোবর ) গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ দিলীপ কুমার ভৌমিক এই রায় দেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার পূর্ব ঝিনিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের তিন ছেলে হযরত আলী (৫৫), হাফিজুল ইসলাম (৩২) ও আজিজুল হোসেন (২৭)।

খালাসপ্রাপ্তরা হলেন, মৃত্যুবরণকারী আবুল হোসেনের স্ত্রী জরিনা বেগম, হযরত আলীর স্ত্রী গোলেনুর বেগম ও হাফিজারের স্ত্রী মোর্শেদা আকতার।

মামলা ও বাদী সূত্রে জানা যায়, ৮০ শতক জমি নিয়ে সুন্দরগঞ্জের পূর্ব ঝিনিয়া গ্রামের মফিজল হকের ছেলে তসলিম উদ্দিনের সঙ্গে প্রতিবেশী আবুল হোসেনের ছেলে হযরত আলীর বিরোধ ও মামলা চলছিল। মামলার রায়ে তসলিম উদ্দীন ওই জমিতে আমন ধান রোপণ করেন। ধান পাকার পর, পরের দিন ধান কাটা হবে এমন সংবাদের ভিত্তিতে হযরত আলী’রা ১১ নভেম্বর, ২০১৬ তারিখ রাতে জমিতে জিআই তার পেতে রেখে তাতে বিদ্যুৎ সংযোগ করে দেন যাতে তসলিম উদ্দিনরা ধান কাটতে না পারেন। পরদিন ১২ নভেম্বর সকালে ওই জমিতে কয়েকজন নারী ও পুরুষ শ্রমিক নিয়ে তসলিম উদ্দিন ধান কাটতে যান। কিন্তু জিআই তারে বিদ্যুৎ থাকার বিষয়টি না জানায় জিআই তারে জড়িয়ে ঘটনাস্থলেই তসলিম উদ্দিন ও সাইদুর রহমানের স্ত্রী মর্জিনা বেগম মারা যান।
এছাড়া মেহের আলী ভোলার ছেলে শহিদুল হক, এনামুল হকের স্ত্রী মর্জিনা বেগম ও তসলিম উদ্দিনের স্ত্রী জমিলা খাতুন গুরুতর আহত হন। পরে এ ঘটনায় তসলিম উদ্দিনের বাবা মফিজল হক সাতজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, এই হত্যা মামলায় তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড ও তিনজনকে খালাস দিয়েছেন আদালত। এছাড়া মামলা চলাকালীন অবস্থায় এক আসামির মৃত্যু হয়। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত তিন আসামির মধ্যে দুইজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন ও অপরজন পলাতক রয়েছেন। পরে আসামিদের গাইবান্ধা জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।
গাইবান্ধা জেলা কারাগারে কনডেম সেল না থাকায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের রংপুর কারাগারে পাঠানো হবে বলেও জানান রাষ্ট্রপক্ষের এই আইনজীবী।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 5
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর