• সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০৩:২০ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
লকডাউনের নবম দিনে সাতক্ষীরায় পুলিশের কঠোর অবস্থান ২১ জুন লক্ষ্মীপুর-২ উপ-নির্বাচন: আওয়ামী লীগের বিরামহীন প্রচারণা প্যাঁচার অভয়াশ্রম সাগরদিঘি শাহজাদপুরে ডুবো রাস্তায় বদলে গেছে লাখো মানুষের জীবনমান লক্ষ্মীপুরে পল্লী বিদ্যুৎ কর্মচারীর মৃত্যু: স্বজনদের দাবি পরিকল্পিত হত্যা সুন্দরগঞ্জে ৬ জুয়াড়ি গ্রেপ্তার শরণখোলায় ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়ি এসে চেক দিলেন জেলা প্রশাসক শত বছরের পুরনো রাস্তা বন্ধ করে অন্যের জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ বাগেরহাটে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা (অনুর্ধ্ব-১৭) গোল্ডকাপ ফুডবল টুনামেন্টের উদ্বোধন মাগুরার শ্রীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আহত-৩

ঘোড়াঘাটে মেডিকেল কলেজ ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ সুমাইয়া কে ফুলেল শুভেচ্ছা

মোঃ সুলতান কবির, ঘোড়াঘাট, দিনাজপুর
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১ | ৪:২৮ pm
                             
                                 

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা থেকে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ মেধাবী ছাত্রী সুমাইয়া আক্তার বর্ষা কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।
মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে উপজেলা পরিষদে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা সহ আর্থিক সহযোগিতা করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাফে খন্দকার সাহানশা। সুমাইয়া আক্তার বর্ষা উপজেলার খোদাদাদপুর কলোনি এলাকার মৃত হারুনুর রশিদ এর মেয়ে। তার দাদা মরহুম আলহাজ্ব বদরুল হাসান একজন ব্রিটিশ সৈনিক ছিলেন। মাতা রোখসানা বেগম একজন গৃহিণী। চার ভাই-বোনের মধ্যে সুমাইয়া আক্তার কনিষ্ঠ।

বাবা মরহুম হারুনুর রশিদ যুব উন্নয়ন অফিসে চাকুরি করতেন। সুমাইয়া আক্তার ২০১৮ সালে পঞ্চগড় সরকারি বালিকা বিদ্যালয় থেকে এস এস সি এবং ২০২০ সালে রংপুর ক্যান্ট পাবলিক কলেজ থেকে এইচ এস সি পাস করে। তার চাচা রেজাউল করিম আবেগ আপ্লুত হয়ে জানান, সুমাইয়ার বাবার মৃত্যুর পর সংসারে অনেকটা অভাব অনাটন নেমে আসে।

এসময় থেকে আমরা তার পড়াশুনার খোঁজ-খবর সহ যতটুকু সম্ভব সহযোগিতা করে আসছি। সুমাইয়ার দাদা ও বাবার স্বপ্ন ছিল ও বড় হয়ে ডাক্তার হবে।

সুমাইয়া আক্তারা বর্ষা অনেকটা আনন্দে উচ্ছ্বসিত হয়ে বলেন, আমি মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে কিশোরগঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তির সুযোগ পেয়েছি। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন ডাক্তার হয়ে গরীব- অসহায় মানুষের সেবায় নিয়োজিত থেকে দাদা ও বাবার স্বপ্ন পূরণ করতে পারি।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর