• রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৪৭ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ কাউন্সিলর পদে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ককটেল বিস্ফোরণ, আটক ১

মো: সোহান মাহমুদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ২৪ মার্চ ২০২১ | ৫:২৬ pm
                             
                                 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ পৌরসভার একটি ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে মর্দানা-আইয়ুব বাজারে এ ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সন্দেহভাজন হিসেবে মর্দানা-পুকুরপাড়ার শান্তু আব্দুল (৩৫) নামে একজনকে আটক করেছে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ।

স্থানীয়রা জানায়, গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গেল এক বছর আগে পালিয়ে থাকা অর্ধশত মানুষ নিজ গ্রাম মর্দানায় প্রবেশ করলে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উটপাখি প্রতীকের প্রার্থীর গোলাম আজমের সমর্থকরা তাদের উপর ধাওয়া করে। এ সময় উভয় পক্ষের সমর্থকরা ককটেল ফাটিয়ে ত্রাসের সৃষ্টি করে।পরে পালিয়ে থাকা লোকজন উটপাখি প্রতীকের সমর্থকদের গ্রাম থেকে বিতাড়িত করে দেয়।

এ বিষয়ে উটপাখি প্রতীকের প্রার্থী গোলাম আজমের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রতিপক্ষ পানির বোতলের প্রার্থী খাইরুল আলম জেমের বেশ কয়েকজন সমর্থক ককটেল ফটিয়ে এলাকায় বিশৃংখলা সৃষ্টির চেষ্টা করে। অপরদিকে প্রতিপক্ষ পানির বোতলের প্রার্থী খাইরুল আলম জেমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আমার সমর্থকরা এলাকায় প্রবেশ করলে উটপাখি প্রতীকের লোকজন অতর্কিতভাবে ককটেল বিস্ফোরণ করে জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি করে।

শিবগঞ্জ পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র সৈয়দ মনিরুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বিষয়টি শুনেছি। ইতোমধ্যে থানা পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

শিবগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, বর্তমানে ঘটনাস্থলে রয়েছি। এখন পরিস্থিতি শান্ত। গ্রামে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে বলে শুনেছি। তবে শিবগঞ্জ থানার ওসি ফরিদ হোসেন জানান,সন্দেহভাজন হিসেবে একজনকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। এখনো গ্রেফতার দেখানো হয়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 2
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর