• সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৪ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

ছিন্নমূল মানুষের পাশে কম্বল নিয়ে হাতে হঠাৎ রাতে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা

মো: আসাদুজ্জামান, ঠাকুরগাঁও
প্রকাশ হয়েছে : শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১ | ৩:৫৫ pm
                             
                                 

রাত সাড়ে ১১টা, কনকনে শীত আর হিমেল হাওয়ায় কাবু হয়ে রেলস্টেশনে কাঁপছিলেন কিছু অসহায় ছিন্নমূল মানুষ। একদিকে যেমন বাড়ছে শীতে প্রকোপ অপরদিকে বাড়ছে কুয়াশা। সব মিলে যেন অনেকটাই কষ্টে রয়েছেন এই রেলস্টেশনের বাড়ান্দায় থাকা মানুষগুলো।

ঠিক এমনি সময়ে তাদের কথা ভাবে বস্ত্রহীন ছিন্নমূল মানুষদের পাশে এসে দাঁড়ালেন ঠাকুরগাঁও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নজমুল হুদা শাহ এ্যাপোলো।

শুক্রবার(২২ জানুয়ারি) রাতে ঠাকুরগাঁও রোড রেলস্টেশনের ঠিক এমনি চিত্রটি চোখে পড়ে।

দুই হাতে কম্বল আর সাথে স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাদের সাথে নিয়ে এগিয়ে গেলেন স্টেশনে থাকা এই অসহায়দের কাছে।

হাঠাৎ এভাবে রাতে কনকনে শীতে হাতে কম্বল পেয়ে অসহায় এই ছিন্নমূল মানুষগুলোর মুখে ফুটেছে হাসি। মুখে হাসি নিয়ে ধন্যবাদ জানালেন জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নজমুল হুদা শাহ এ্যাপোলোকে।

রেলস্টেশনে দীর্ঘ ২ বছর ধরে থাকেন ৫১ বছর বয়সের সাবিনা ইয়াসমিন। ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তিনি। হঠাৎ রাতে হাতে কম্বল পেয়ে আনন্দিত হয়ে তিনি বললেন, শীতে অনেক কষ্ট হয় আমাদের। হাতে নেই টাকা কাপড় কিনবো কি করে। স্বামী মারা যাবার পর কেউ আমারে দেখেনা। তাই এখানে থাকি কষ্ট করে। কেউ দিলে দেয় না দিলে নাই। আজকে আমারে কম্বল দিলো। আমি অনেক খুশি।

মকবুল হোসেন নামে আরেক ব্যক্তি বলেন, আজ তীব্র শীত পড়েছে। কিভাবে রাতযাপন করবো তা নিয়ে ভাবছিলাম। ঠিক এমন সময় নেতা আমাকে একখান কম্বল দিছে। এখন রাইতে ভালো ভাবে ঘুমাতে পাড়বো। আল্লাহ নেতাটার ভালো করুক।
ঠাকুরগাঁও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নজমুল হুদা শাহ এ্যাপোলো বলেন,গত কয়েকদিন আগে আমি ট্রেনে করে ঢাকায় যাবার সময় দেখি স্টেশনে রাতে শীতে বেশ কয়েকজন মানুষ কষ্টে ঘুমাচ্ছেন। বিষয়টি আমার খুব খারাপ লাগে। এসময় আমি সিদ্ধান্ত নেই যে ঠাকুরগাঁও এসে এই মানুষদের কিছু শীতবস্ত্র দিবো। পরে আমি স্টেশনে কর্মরত স্টেশন মাস্টারের কাছে তথ্য নিয়ে এখানে ২০টি কম্বল নিয়ে এসেছি। আজ তাদের কম্বল গুলো দিয়ে অকেটাই ভালো লাগলো। এছাড়া এই স্টেমনে পরিচ্ছন্নকর্মীদের মাঝে গামবুট ও হ্যান্ড গ্লাভস দেয়া হয়েছে।

তিনি আরো বলেন,বিত্তবানরা তো টাকা দিয়ে গরম কাপড় কিনে পড়ে। কিন্তু এই ছিন্নমূল মানুষগুলো টাকার অভাবে শীতে গরম কাপড় কিনতে পাড়েনা। তাই আজ আমি তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। ছিন্নমূল এই অসহায়দের পাশে প্রতিটি সময় জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ ছিলো থাকবে।

কম্বল বিতরনে উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মুজাহিদুর রহমান শুভ,সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াফু তপু, সাংগঠনিক সম্পাদক মিঠুন, দপ্তর সম্পাদক আবু হাসনাত রুমন,সদর থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শিউলী আক্তার,সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য বৃষ্টি সরকার সহ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর