• রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

ঠাকুরগাঁওয়ে চেয়ারম্যানের নামে মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগ

মো: আসাদুজ্জামান, ঠাকুরগাঁও
প্রকাশ হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট ২০২১ | ১:০০ am
                             
                                 

 ঠাকুরগাঁওয়ে পারিবারিক সমস্যার সমাধান করে দেয়ায় চেয়ারম্যানের নামে মিথ্যা অভিযোগ এনে অপপ্রচার করার অভিযোগ উঠেছে। চেয়ারম্যানের দাবি সামনে নির্বাচন, তাই নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই একটি মহল তার বিরুদ্ধে এসব অপপ্রচার চালাচ্ছেন।

বুধবার(০৪ আগস্ট) বিকেলে এমনি অভিযোগ করেন সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী।

জানা যায়, দীর্ঘ ৬মাস আগে চিলারং ইউনিয়নের লিটন সরকারের মেয়ের সাথে বিয়ে সহজ একই ইউনিয়নের বাঁশপাড়া এলাকার ইউনুস আলীর ছেলে আহসান হাবিবের সাথে। বিয়ের পর থেকে পারিবারিক একটি সমস্যারর সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে লিটন সরকারের মেয়ে তার বাবার বাসায় চলে যায়। এরপর গত ২৫ জুলাই আহসান হাবিব তার শ্বশুড় বাসায় গিয়ে তার বউকে আনতে গেলে শ্বশুড় বাসার লোকেরা বিষয়টি স্থানীয় মেম্বারকে অবগত করেন। পরে উভয় পরিবারের স্বজনেরা একটি সমাধানে বাসার জন্য ইউনিয়নর পরিষদ কার্যালয়ে আসেন। এমসয় চেয়ারম্যান বিষয়টি অবগত হয়ে দুই পরিবারের সম্মতিক্রমে একটি সমাধান করে দেন।

এদিকে সমাধানের দীর্ঘ ১১দিন পর সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি সংবাদ প্রচার করা হয়। যেখানে উল্লেখ করা হয় চেয়াারম্যানের বিরুদ্ধে সালিশের নামে হয়রানির অভিযোগ। সেই সাথে এই সংবাদের উল্লেখ করা হয় মেয়ের স্বামী আহসান হাবিবকে চেয়ারম্যানের নির্দেশে মারধর ও তার জমির কাগজ নিয়ে নেয়া হয়। সেই সাথে নগত ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা নেয়া হয়। যদিও বিষয়গুলোকে ভিত্তিহিন বলে দাবি করছেন চেয়ারম্যান সহ ভূক্তভোগি দুই পরিবারের স্বজনেরা।

আহসান হাবিবের শ্বশুড় লিটন সরকার বলেন, আমার মেয়ে সেই ছেলের সাথে সংসার করবেনা বলেই আমরা বিষয়টি স্থানীয় মেম্বারকে অবগত করি। এটি একটি পারিবারি বিষয়। আমরা বসেই সমাধান করেছি। কিন্তু সমাধানের এতোদিন পরে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ হচ্ছে আমার মেয়েকে নিয়ে। এটাতে আমরা অনেক ছোট হয়েছি। এ ধরনের সংবাদ প্রচার করা ঠিক হচ্ছেনা।

মেয়ের দাদি আলেফা বেগম বলেন, এটাতো আমাদের পারিবারিক বিষয়। এখানে এতো সংবাদ না কি এসবের কি আছে। আমাদের পারিবারিক বিষয় সমস্যা হয়েছে আমরা মেম্বার চেয়ারম্যানের মাধ্যমে সেটা সমাধান করে নিয়েছি। এতে কোন অর্থের লেনদেন হয়নি। এসব মিথ্যা সংবাদ করে আমাদের পরিবারের সম্মানহানী করা হচ্ছে।

মেয়ের স্বামী আহসান হাবিব বলেন, আমার স্ত্রী আমার সাথে সংসার করতে চায়না। এ বিষয়টি নিয়ে পারিবারিক সমস্যা হলে আমার শ্বশুর বাড়ির লোকজন স্থানীয় মেম্বারদেরকে বলে। পরবর্তীতে বিষয়টি পরিষদে চেয়ারম্যান, মেম্বার, সাংবাদিক, কাউন্সিলরসহ স্থাণীয় গন্যমাণ্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে সমাধান করে দেয়া হয়। এখন আমাদের সংসার সুন্দর ভাবেই চলছে। এখানে কোন টাকা পয়সা বা জমির দলিল এসব কিছুই লেনদেন হয়নি। আমাকে মারপিটও করা হয়নি। অথচ বিভিন্ন জায়গায় অপপ্রচার করা হচ্ছে।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বলেন, স্থানীয় মেম্বারের মাধ্যমে বিষয়টি আামি জানতে পাড়ি। যেহেতু আমাদের এলাকার মানুষ। অনেক গরীব তারা। এটা তাদের পারিবারিক বিষয় ছিলো, তাই পরিষদে বসে সকলের সম্মতিক্রমে সেটার সমাধন করা হয়েছে। সমাধানের সময় স্থানীয় বেশ কয়েকজন সংবাদকর্মী, ঠাকুরগাঁও পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিল জমিরুল ইসলামও উপস্থিত ছিলেন। এখন ফেসবুকে বিভিন্ন নিউজে আমার নামে মিথ্যা বানোয়াট সংবাদ ছাঁপানো হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, সামনে চেয়ারম্যানের ভোট যার কারনে একটি চক্র আমার নামে এসব অপপ্রচার করে আমার ভোটে একটি সমস্যার সৃষ্টি করতে চাচ্ছে। এই এলাকার জনগণ আমার পক্ষে আছে বলেই আমি আজও পর্যন্ত তাদের হয়ে কাজ করে যাচ্ছি। বিনা কারণে এভাবে আমার নামে মিথ্যা অপপ্রচারের ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা জানাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর