• শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৯:১৩ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
চুয়েটে তিনদিনব্যাপী পুরকৌশল বিষয়ক আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সম্পন্ন তাহিরপুর সীমান্তে মদসহ ১ ব্যবসায়ী গ্রেফতার দেশের নদ-নদীর প্রাণ ফিরিয়ে আনার কাজ করে যাচ্ছে সরকার -পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী প্রতারণা মামলায় গ্রেফতার নাচোলের মিলন ইবি’র ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের নতুন সভাপতি নিয়োগ সিংগাইরে স্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করলেন স্বামী রামগঞ্জে আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ ১৫ পরিবারের পাশে কেন্দ্রীয় যুবদল নেতা ইমাম হোসেন শাহজাদপুরে শুরু হয়েছে ঐতিহ্যবাহি বাউত উৎসব ফুলবাড়িয়ার সকল মুক্তিযোদ্ধার কবর পাকা করে দিবেন আওয়ামীলীগ নেতা তপন তালুকদার ছাতকে খাল খনন প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগ

বকশীগঞ্জে সরকারি কাজে বাঁধা দেয়ার অভিযোগ, ভারপ্রাপ্ত শিক্ষককে প্রাণ নাশের হুমকি

জিএম ফাতিউল হাফিজ বাবু, বকশীগঞ্জ (জামালপুর)
প্রকাশ হয়েছে : রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১০:৫১ pm
                             
                                 

জামালপুরের বকশীগঞ্জ সরকারী উলফাতুন্নেছা সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নির্মাণ কাজে কাজে বাঁধা, বিদ্যালয়ের জমি দখলের অপচেষ্টাসহ বিদ্যালয়ের ভারপাপ্ত প্রধান শিক্ষককে প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

২১ ফেব্রুয়ারী রোববার বিকালে বকশীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বিদ্যালয়ের ভারপপ্ত প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান।
অভিযোগ দেওয়ার পর সরাসরি প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ায় চরম নিরাপত্তাহীনতা ভুগছেন বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকসহ সহকারী শিক্ষকরা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান জানান, ১৯৬২ সালে ১.৭৪একর জমির উপর স্কুল প্রতিষ্ঠা হয়। পরবর্তী ১/৭/১৯৮৭ সালে স্কুল জাতীয় করণ হয়। সম্প্রতি সহকারী কমিশনার (ভুমি) স্নিগ্ধা দাস ও বকশীগঞ্জ পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম সওদাগরের সহযোগিতায় ১.৭৪ একর জমির বুঝে নিয়ে স্কুলের বাউন্ডারী দেওয়াল নির্মানের চেষ্টা কালে স্কুলের পাশ্ববর্তী বাবু লাল সাহা, লাবু সাহা ও রতন সাহা গিয়ে নির্মাণ কাজে বাঁধা দেয় এবং প্রধান শিক্ষককে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে।

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বকশীগঞ্জ থানায় সাধারণ ডাইরী করলে ক্ষিপ্ত হয়ে ২১ ফেব্রুয়ারী দলবলসহ স্কুলে ঢুকে প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষককে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়া হয়। এ নিয়ে প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকরা চরম নিরাপত্তাহীনতা ভুগছে।
এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম সম্রাট জানান, সরকারী কাজে বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 16
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর