• বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৬:৫১ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

বাগরেহাটে জমি জবর দখল ও হামলার অভিযোগে ব্যবসায়ীর সংবাদ সম্মেলন

আবু হানিফ, বাগেরহাট
প্রকাশ হয়েছে : রবিবার, ২ মে ২০২১ | ৩:৪৬ pm
                             
                                 

বাগেরহাটে জবর দখলকৃত জমি ফেরত পেতে এবং জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মো: হাবিবুর রহমান শাওন নামের এক ব্যবসায়ী। রবিবার (০২ মে) দুপুরে বাগেরহাট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে ব্যবসায়ী মো: হাবিবুর রহমান শাওন বলেন, বাগেরহাট সদর উপজেলার চাপাতলা মৌজায় কয়েকটি দাগে পত্রিক ও ক্রয়সূত্রে আমাদের এক একর ২৬ শতক জমি রয়েছে। ওই জমিতে আমাদের বাড়ি ঘর রয়েছে। বাগেরহাট শহরে ব্যবসা বানিজ্য করার কারণে আমরা শহরের বাড়িতেই থাকি। এই সুযোগে আমাদের প্রতিবেশী প্রতিবেশী রুস্তুম গাজী তার নিকট আত্মীয় মুশিদপুর এলাকার লিয়াকত গাজীর সহযোগিতায় আমাদের ২৫ দশমিক ৮৯ শতক জমি জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছে। বিষয়টি আমরা জানতে পেরে স্থানীয়ভাবে শালীস মীমাংসার মাধ্যমে জমি উদ্ধারের চেষ্টা করেছি। কিন্তু শালীসদাররা আমাদের জমি ফেরত দিতে বলা স্বত্ত্ওে তিনি জমি ফেরত দেন নি। সর্বশেষ এবছরের ৪ ফেব্রুয়ারি যাত্রাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বেগ এমদাদুল হক বাচ্চুসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিদের মধ্যস্থতায় সার্ভেয়ার নিয়ে ওই জমি পরিমাপ করা হয়। জমি মেপে দেখা যায় রুস্তুম গাজীর আমাদের ২৫.৮৯ শতক জমি জোরপূর্বক দখল করে নিয়েছেন। শালীসে উপস্থিত ব্যক্তিগন রুস্তুম গাজীকে জমি ফেরত দিতে বলেন। এরপরে সে জমি ফেরত দিতে রাজি হননি। বরং আমাদেরকে বার বার হুমকী দিচ্ছে। তার কাছে জমি বিক্রি করার জন্য চাপ প্রয়োগ করছে।
এরই ধারবাহিকতায় ১৭ ফেব্রুয়ারী রুস্তুম গাজী ও লিয়াকত গাজী ,বাদশা গাজীসহ আরো ৫-৬ জন আমাদের বাড়িতে বাড়ির কেয়ার টেকার আঃ খালেক ও তার স্ত্রীকে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে হামলা করে। জীবন বাঁচাতে তারা ঘরের মধ্যে আশ্রয় নেয়। এসময় রুস্তুমসহ অন্যরা ঘরে প্রবেশ করে আঃ খালেক ও তার স্ত্রীকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে ঘরে থাকা আমার মায়ের গহনা , নগদ টাকা, মূল্যবান মালামালসহ আড়াই লক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। শুধু এই দিন নয় এর আগেও রুস্তুম ও তার দোশররা আমাদের লোকজনের উপর একাধিকবার হামলা করেছে। লুট করেছে আমাদের মূল্যবান সম্পদ। আসলে তারা কোন শালীস ও সমঝোতা মানেন না। জোরপূর্বক জমি ভোগদখল করাই তাদের কাজ। আমরা আমাদের ক্রয়কৃত ও পৈত্রিক জমি দাবি করলে বা জমির জন্য প্রশাসনের কাছে গেলে আমাকে ও আমার আম্মাকে মেরে ফেলারও হুমকী দিয়েছে রুস্তুম গাজী। এই অবস্থায় আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। জমি ও জীবনের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।
তবে শাওনের অভিযোগ অস্বীকার করে রুস্তুম গাজী বলেন, আমি কারও জমি দখল করিনি। প্রয়োজনে আপনারা কাগজপত্র অনুযায়ী মেপে দেখেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 8
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর