• সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
অননুমোদিতভাবে দেশের বাইরে অবস্থান: চাকরি হারালেন ঢাবির দুই শিক্ষক স্বাস্থ্যবিধি না মানায় করোনার দ্বিতীয় সংক্রমণ বাড়ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শরণখোলায় আওয়ামীলীগ নেতা মনির হোসেনের নির্বাচনী গণসংযোগ অনুষ্ঠিত করোনার ২য় ঢেউ নিয়ে সিএমপির ২৬ নির্দেশনা জারি তালায় গ্রাম আদালতের রিটার্ন রিপোর্ট প্রেরনের উপর প্রশিক্ষন কর্মশালা শ্যামনগরে মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের অনুদানের চেক বিতরণ শ্যামনগরে সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সংলাপ অনুষ্ঠিত শ্যামনগরে আন্তর্জাতিক স্তন ক্যান্সার সচেতনতা দিবস পালন চট্টগ্রামে কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার গৌরীপুরে করোনা ভাইরাস মোকবেলায় জনসচেতনমূলক কর্মসূচী পালন

মরার আগে কি জুটবে ভাতা ?

আনোয়ার হোসেন, (মনিরামপুর) যশোর
প্রকাশ হয়েছে : রবিবার, ২২ নভেম্বর ২০২০ | ৭:১০ pm
                             
                                 

কফুরোন্নেছার প্রকৃত বয়স নব্বই। বয়সের ভারে নুইয়ে পড়েছেন। জাতীয় পরিচয়পত্রের হিসেব অনুযায়ী তার বয়স ৮১ বছর। ২০-৩০ বছর আগে বয়স্কভাতা পাওয়ার যোগ্য হলেও এই বৃদ্ধার ভাগ্যে জোটেনি ভাতার কার্ড। স্বামীকে হারিয়েছেন এক বছর আগে। এখন দুই প্রকার ভাতা পাওয়ার যোগ্য তিনি। কোন প্রকারের ভাতা না জোটায় জীবনের শেষ প্রান্তে এসে বৃদ্ধার জানার ইচ্ছা, মমরার আগে কি জুটবে একটি ভাতার কার্ড? কফুরোন্নেছা উপজেলার শেখপাড়া রোহিতা গ্রামের মৃত আব্দুল মান্নানের স্ত্রী।

একমাত্র ছেলে আব্দুস সামাদের আশ্রয়ে রয়েছেন তিনি। বৃদ্ধার ছেলে আব্দুস সামাদও বয়স্কভাতা পাওয়ার যোগ্য। তাদের খবর রাখেননা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি বা সমাজসেবা কর্মী। ফলে মা ছেলে দু’জনে রয়েছেন ভাতা বঞ্চিত।

বৃদ্ধা বলেন, গ্রামের মেম্বরের কাছে গিলাম (গিয়েছিলাম)। কার্ড করে দেবে কইলো। এখনো দিইনি। বৃদ্ধার ছেলে আব্দুস সামাদ বলেন, ভিটেটুকু ছাড়া কিছু নেই। অন্যের জমিতে কাজ করে সংসার চলে। আমরা সরকারি কোন সুবিধে পাইনে। বৃদ্ধার পোতা ছেলে শাহা আলম বলেন, কয়মাস আগে মাইকিং করে ইউপি পরিষদে ডেকেছিল। দাদিকে সাথে নিয়ে কাগজপত্র জমা দিয়েছি। ওই সময় অনেকের কার্ড হয়েছে। দাদিরটা হয়নি। স্থানীয় ইউপি সদস্য মহিতুল ইসলাম বলেন, এবার বরাদ্দ আসলে কফুরোন্নেছার কার্ড করে দেব। এই বিষয়ে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. রোকনুজ্জামান বলেন, আপাতত বরাদ্দস নেই। আগামীতে বরাদ্দ আসলে ভাতার কার্ড দেওয়া যাবে। তারআগে বৃদ্ধার পক্ষ থেকে আবেদন করতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 3
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর