• রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩৭ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম

মোবাইল নম্বর ডাইভার্টের ঘটনায় বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

ওবায়দুর রহমান, গৌরিপুর, ময়মনসিংহ
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ৬ অক্টোবর ২০২১ | ১২:৪৫ am
                             
                                 

মোবাইল নম্বর ডাইভার্টের অভিযোগে বাকবিতন্ডাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় সাইফুল ইসলামের (৪৭) বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ ওঠেছে প্রতিপক্ষ কাঁলাচান (৩৮) ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে। রবিবার (৩ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রনগর গ্রামের উত্তরপাড়া এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

উল্লেখিত গ্রামের মৃত মোন্তাজ উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম জানান, তার ছেলে নাকিবের (১৫) ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর (০১৮৮১৩৪৮৯২৪) অতি সম্প্রতি শত্রæতামূলক ডাইভার্ট করে রাখে প্রতিবেশী দুলাল মিয়ার ছেলে মোশারফ (১৮)। এতে কিছুদিন ধরে এ মোবাইল নম্বরে আসা কল চলে যায় মোশারফের কাছে। ঘটনাটি বুঝতে পেরে সমস্যাটি নিরসনের জন্য মোশারফকে তাগিদ হলে সে এ বিষয়টি আমলে না নিয়ে নম্বরটি ডাইভার্ট করে রাখে। এ ঘটনার জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে নাকিবকে মারধর করে মোশারফ ও তার লোকজন। এতেও তারা ক্ষান্ত হয়নি পরদিন মোশারফের চাচাতো ভাই কালাচাঁনের নেতৃত্বে প্রায় ২৫জন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদের বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাট করে। হামলাকালে ঘরে থাকা নগদ এক লাখ টাকা ও প্রায় আড়াই লাখ টাকা স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায় তারা।

সাইফুল ইসলাম আরও জানান, কালাচাঁন একজন অসামাজিক ও সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। এলাকায় তার একটি নিজস্ব বাহিনী রয়েছে। স্থানীয় লোকজন তার অপকর্মের প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হলে তাদেরকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকী দিয়েছে কালাচাঁন। কালাচাঁনের হুমকীতে বর্তমানে তারা আতঙ্কে রয়েছেন বলে জানান সাইফুল ইসলাম।

এ ঘটনায় মন্তব্য জানতে কালাচাঁনের মোবাইল নম্বরে সাংবাদিকরা একাধিকবার কল করলেও যথাক্রমে তার স্ত্রী ও মেয়ে তা রিসিভ করেন। এসময় তারা জানান কালাচাঁন মোবাইল সেট বাড়িতে রেখে বাজারে চলে গেছেন।

এ বিষয়ে মোশারফ বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, সে কোন মোবাইল নম্বর ডাইভার্ট করেনি।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী সাংবাদিকদের জানান, এ ঘটনায় সাইফুল ইসলাম থানায় অভিযোগ করেছেন। ঘটনার তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর