• বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১২:৫১ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লক্ষ্মীপুরে বৃক্ষরোপণ ও ঢেউটিন বিতরণ কেক কাটা ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গৌরীপুরে এতিম শিশুদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ ধর্মপাশায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিনামুল্যে মাস্ক বিতরণ রাজারহাটে সেনাবাহিনীর নিজস্ব রেশন দিয়ে সুস্থ-অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ডাসার উপজেলা প্রেসক্লাবে মিজান সভাপতি, জাফরুল সম্পাদক নির্বাচিত ঘোড়াঘাটে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে স্বেচ্ছাসেবকলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন বকশীগঞ্জে করোনার সংক্রমণ রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম অব্যাহত শ্যামনগরে অর্ধলক্ষাধিক টাকার চিংড়ী বিনষ্ট

রাজারহাটে ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এর উদ্যোগে ৬৫টি গরু কোরবানী

শহিদুল ইসলাম, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম)
প্রকাশ হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ২২ জুলাই ২০২১ | ১১:১৩ pm
                             
                                 

রাজারহাটে ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এর উদ্যোগে ২হাজার ২৭৫ পরিবারের মাঝে কোরবানির মাংস বিতরন করা হয়েছে। ঈদ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন পরিষদে হত-দরিদ্রদের মাঝে এই মাংস বিতরন করা হয়।

জানা গেছে,ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ সকল মানুষের মাঝে ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে দেয়া এবং অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের পুষ্টির চাহিদা পূরণের লক্ষে কোরবানির উদ্যোগ গ্রহণ করে। ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এর নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসাবে মাল্টি সেক্টরাল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (এমএসডিপি) এর আওতায় বৃহস্পতিবার উপজেলা সদর,চাকিরপশার,উমর মজিদ,নাজিমখাঁন,বিদ্যানন্দ ও ছিনাই ইউনিয়নে ৬৫টি গরু কোরবানি করা হয়। পরে কোরবানির মাংস ২কেজি করে ২হাজার ২৭৫টি পরিবারের মাঝে বিতরন করা হয়।

উক্ত বিতরণ অনুষ্ঠানে ইইপি প্রকল্পের কর্মকর্তা,সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণ,সাংবাদিক ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গ উপস্থিত ছিলেন। ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ এ বছর কোরবানি ঈদে ২৮টি জেলার গরিব ও দুস্থ পরিবারের মাঝে ২হাজার ৩৭৭টি গরু কোরবানির মাধ্যমে ৮৩হাজার ১৯৫ পরিবারের মাঝে গরুর মাংস বিতরণ করেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

উল্লেখ্য,ইসলামিক রিলিফ ওয়ার্ল্ডওয়াইড একটি আন্তর্জাতিক বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা। ১৯৮৪ সালে ব্রিটিশ চ্যারিটি নং-৩২৮১৫৮ নিবন্ধনের মাধ্যমে ইংলান্ডের বার্মিংহামে কার্যক্রম শুরু করে। সংস্থাটি বর্তমানে বিশ্বের ৫০টি দেশে কাজ করছে।

১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিল চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে ভয়াবহ ঘুর্নিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ ও পূনর্বাসন কার্যক্রমে সহায়তার মাধ্যমে ইসলামিক রিলিফ ওয়ার্ল্ডওয়াইড বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করে। সংস্থাটি বর্তমানে দেশের ৩৭টি জেলায় জলবায়ু পরিবর্তন, দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস, জরুরি ত্রাণ সহায়তা, পূনর্বাসন, জীবন-যাত্রার মানোন্নয়নের মাধ্যমে টেকসই সমাজ উন্নয়ন, স্বাস্থ্য ও পুষ্টি, এতিম ও শিশু কল্যাণ, পানি ও পয়:নিস্কাশন প্রভৃতি কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশ জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন নেটওয়ার্কের মাধ্যমে এডভোকেসি করার পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে নানা কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর