• সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

সংবাদ সম্মেলন

রাজারহাটে ভূমিহীনদের নামে বন্দোবস্তকৃত জমি পূনরুদ্ধার দাবী

শহিদুল ইসলাম, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম)
প্রকাশ হয়েছে : মঙ্গলবার, ৩০ মার্চ ২০২১ | ৭:১৮ pm
                             
                                 

সরকারি বন্দোবস্ত পাওয়া জমির দখল দাবিতে মঙ্গলবার রাজারহাট প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে ১৫০ রিফিউজি ভূমিহীন পরিবার।
বন্দোবস্তকৃত ২০৭ একর জমি পূনরুদ্ধারের জন্য ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে উপজেলা ভূমি অফিস পর্যন্ত বিভিন্ন দপ্তরে স্মারক লিপি দিয়েছেন রাজারহাট উপজেলার মীরের বাড়ি-মহিধর গ্রামের রিফিউজি পরিবারগুলো।
সংবাদ সম্মেলনে রিফিউজি পরিবার গুলোর পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, জমির উদ্দিন। তিনি বলেন,১৯৫৫সালে দেশ ত্যাগ করে আসা ১৫০ পরিবারকে তৎকালীর সরকার রাজারহাট উপজেলার হরিশ্বর তালুক মৌজায় রিফিউজি কলোনী তৈরী করে বসবাস ও চাষাবাদের জন্য ২০৭ একর জমি বন্দোবস্ত প্রদান করে। সে সময় রিফিউজি পরিবারগুলো এসব জমির খাজনা পরিশোধ করে এতে বসবাস ও ফসল চাষাবাদ দিয়ে জীবন যাপন করে আসছিল।
স্বাধীনতার পর কিছু প্রভাবশালী ও ভূমি দস্যু ব্যক্তি রাতারাতি রিফিউজিদের ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দিয়ে ফসলী জমি ও বসত ভিটা দখল করে নেয়। সে সময় এঘটনায় রিফিউজির ৮সদস্য আগুনে পুড়ে মারা যায়। এছাড়া স্থানীয় ভূমি অফিসও পুড়িয়ে দেয় ভূমি দস্যুরা। প্রভাবশালী ভূমি দস্যুরা বন্দোবস্তকৃত জমির ভূয়া রেকর্ড তৈরী করলেও তা উপজেলা সহকারি কমিশনারের কার্যালয়ে বাতিল হয়। পরে ভূমি দস্যুরা রিফিউজিদের বন্দোবস্ত নেয়া জমি নিজেদের করে নিতে সর্বোচ্চ আদালত বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে রীট পিটিশন রুজু করলেও তা খারিজ হয় বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন,সরকারের বন্দোবস্তকৃত জমি পূনরুদ্ধারের জন্য দীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে আমরা আন্দোলন করে আসলেও কোন সমাধান হয়নি। ২০১৭ সালে রিফিউজি পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে জেলা প্রশাসনকে এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করা হলেও কোন লাভ হয়নি বলে জানান।
সংবাদ সম্মেলনে রাজারহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি সরকার অরুণ যদু,সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ সহ সাংবাদিক বৃন্দ ও রিফিউজি পরিবারের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর