• রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:১০ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

রামগঞ্জে সরকারী সম্পত্তি জবর-দখল নিয়ে দুই গ্রুপ মুখোমুখি

উপজেলা সংবাদদাতা
প্রকাশ হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০ | ৪:১৭ pm
                             
                                 

লক্ষীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার আলীপুর গ্রামে বৃহস্পতিবার দুপুরে সরকারী সম্পত্তি জবর-দখলে গ্রামবাসী বাধা দিয়ে পর্যাক্রমে পাহারা দিচ্ছে। এনিয়ে গ্রামবাসী ও জবর দখলের চেষ্টাকারীর মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সুত্রে জানায়,উপজেলার আলীপুর মৌজার সাবেক ৮৯৯ দাগে সরকারী খাস খতিয়ানে ১০ শতাংশ সম্পত্তি রয়েছে। উক্ত সম্পত্তির উপর দিয়ে একটি কার্লভাট এবং ৫ গ্রামের মানুষের চলাচলের রাস্তা রয়েছে। শুধু তাই নয় বক্তারপুর,আলীপুর,দরবেশপুরসহ ৫ গ্রামের পানি অপসারনের একমাত্র খাল রয়েছে। খালের পাশে বনজগাছ রোপন করে আলীপুর করিম উল্যাহ বেপারী বাড়ির ২৫ পরিবার স্বাধীনতার পুর্ব থেকে ভোগ দখল করে আসছে।

গ্রামের ইসহাক,কুদ্দুস,হারুন,নুর আলম সহ ২৫ পরিবারের লোকজন জানান,একই গ্রামের শামছুল হক মাঠ জরিপে প্রতারনার মাধ্যমে একটি ভূয়া খতিয়ান তৈরী করে কয়েকদিন পুর্ব থেকে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে সম্পত্তি দখলের চেষ্টা চালায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ সম্পত্তি জবর-দখল করবে এমন সংবাদে আমরা গ্রামবাসী পাহারা বসিয়েছি। এব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত শামছুল হক বলেন,আমার সম্পত্তির সামনে সরকারী সম্পত্তি মাঠ জরিপে সরকার আমার নামে খতিয়ান করে দিয়েছে। সরকার আবার প্রয়োজন হলে নিয়ে যাবে। কিন্তু যারা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে,তাদের সমস্যা কোথাই বুঝতে পারছি না।

দরবেশপুর ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রুহুল আমিন বাবুল বলেন,ডিএস খতিয়ান ও নক্সার আলোকে সম্পত্তিটি সরকারের খাস খতিয়ানের হলেও মাঠ জরিপে শামছুল হক কিভাবে খতিয়ান করেছে,তা ভুমি অফিসের জানা নেই। খুব শীঘ্রই কাগজপত্র যাচাই করে সরকারের ওই সম্পত্তি পুনরায় খাস খতিয়ান ভুক্ত করতে মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 3
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর