• রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০৩ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

লক্ষ্মীপুরে জেলেদের নিয়ে অধি-পরামর্শমূলক কর্মশালা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪:৪১ pm
                             
                                 

লক্ষ্মীপুরে জেলেদের তালিকা হাল নাগাদ করণ ও সরকারি সুযোগ সুবিধা প্রাপ্তি নিশ্চিত করণ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট সেন্টার (কোডেক) এর আয়োজনে বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দিনব্যাপি জেলা মৎস্য অফিস মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় সহযোগিতা করেন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন। কর্মশালায় ২৫ জন জেলে ও তাদের স্ত্রীরা অংশ নেয়।

কোডেক পিআরইডিএফসি প্রকল্পের সমন্বয়কারী মোরশেদা বেগমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ বিল্লাল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা আবুল কাশেম।
কোডেক এর প্রজেক্ট অফিসার মোহাম্মদ হানিফ এর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, কোডেক পিআরইডিএফসি প্রজেক্ট লক্ষ্মীপুরের ট্রেনিং ও ডকুমেন্টেসন অফিসার দে দুলাল হাওলাদার, ফিল্ড ফেসিসিটেটর ক্লারেন্স ডায়েস, সাংবাদিক মো: সোহেল রানা, জেলে ও বেদে প্রতিনিধি সৌহরাব মাঝি, আসমা বেগম, স্বপন রায়, বেলাল প্রমুক। এসময় স্থানীয় জেলে ও কমিটির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বক্তারা বলেন, সরকারের নানান উদ্যোগের ফলে আজকে ইলিশসহ অন্যান্য মাছের উৎপাদন বহুগুন বৃদ্ধি পেয়েছে। সাগরে ইলিশসহ অন্যান্য মাছের প্রজনন নির্বিঘœ হলে মাছের পরিমাণ আরো বাড়বে। একইসাথে বছরের নিষিদ্ধ সময়ে মাছ ধরা বন্ধ রাখলে বাকি সময়ে ৪ গুন মাছ বেশি পাওয়া যাবে।

তারা বলেন, ২০১৩-২০১৪ সালে সারাদেশে জেলেদের পরিচয়পত্রের মাধ্যমে শনাক্ত ও নিবন্ধন করা হয়েছে। তারা প্রত্যেকেই সরকারি সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছেন। যদি কোন জেলের এনআইডি কার্ড না থাকে তাহলে অন্য কারো সাথে যোগাযোগ না করে সরাসরি মৎস্য অফিসে আসবেন। এতে প্রকৃত জেলে বাছাইয়ে সুবিধা হবে বলে জানান মৎস্য কর্মকর্তা বিল্লাল হোসেন।
উল্লেখ্য, মেঘনা উপকূলীয় জেলা লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররমনী মোহন ইউনিয়নে ৩৬টি গ্রুপে ১৮০০ জেলে সদস্য নিয়ে কাজ করছে কোডেক।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর