• মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১২:৫১ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

লক্ষ্মীপুরে দুই ইউপি উপ-নির্বাচন: জনপ্রিয়তা ও গনসংযোগে এগিয়ে রয়েছেন যারা

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৫:৫৮ pm
                             
                                 

লক্ষ্মীপুরে সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ও রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার বিকেলে সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা স্বপন কুমার ভৌমিক ও রায়পুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দীপক বিশ্বাস এ তফসিল ঘোষণা করেন।

প্রয়াত শাহজাহান কামালের মৃত্যুতে শূন্য হওয়া লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার ৬নং কেরোয়া ইউনিয়ন পরিষদের উপনির্বাচনে জনপ্রিয়তা ও গনসংযোগে এগিয়ে রয়েছেন বায়েজীদ ভূঁইয়া। উন্নয়নের দারা অব্যাহত রাখতে দীর্ঘদিন এই এলাকায় দলীয় নেতা-কর্মী ও গণমানুষের কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি বায়েজীদ ভূঁইয়াকে চান স্থানীয় নেতা-কর্মীরা। তিনি লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক ছিলেন।

অপরদিকে প্রয়াত নুরুল ইসলাম বাবুল এর মৃত্যুতে শূন্য হওয়া সদর উপজেলার ১০নং চন্দ্রগঞ্জ ইউপি উপ-নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচনকে ঘিরে সর্বত্রই চলছে আলোচনা। আলোচনায় প্রাধান্য পাচ্ছে কে পাবেন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন, কে হচ্ছেন আগামী ইউপি চেয়ারম্যান এসব নানা বিষয়। এতে ১৪ দলীয় ঐক্যজোটের চন্দ্রগঞ্জ শাখার সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা এম ছাবির আহমেদ, চন্দ্রগঞ্জ থানা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আইনুল আহমেদ তানভীর ও আওয়ামী লীগ নেতা মুনছুর আহমেদ এগিয়ে রয়েছেন।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী জানা যায়, আগামি ১৬ থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার সংশ্লিষ্ট কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র গ্রহণ ও দাখিল, ২৬ সেপ্টেম্বর বাছাই, ০৩ অক্টোবর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ও ২০ অক্টোবর ভোটগ্রহণের সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছে।
সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা স্বপন কুমার ভৌমিক জানান, চন্দ্রগঞ্জ ও কেরোয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের মৃত্যু জনিত কারণে নির্বাচন কমিশন ইউনিয়ন দুটির চেয়ারম্যান পদ শূন্য ঘোষণা করে এ তফসিল ঘোষণা করেন।

জানতে চাইলে লক্ষ্মীপুর জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ন আহবায়ক বায়েজীদ ভূঁইয়া বলেন, কেরোয়া ইউনিয়নকে একটি আদর্শ ইউনিয়নে রূপায়ন করবো, এ ইউনিয়নের প্রতিটি মানুষ হবে আদর্শবান। মানুষের জন্য কাজ করবো। আপদে-বিপদে মানুষের পাশে থাকবো। দীর্ঘদিন ধরে অবহেলিত এবং উপেক্ষিত এই কেরোয়ার প্রতিটি ওয়ার্ডের রাস্তা-ঘাট, মসজিদ মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ সর্বসাধারণের প্রয়োজনে আমি উনাদের পাশে দাঁড়াতে চাই। এখানে ইতোমধ্যে আমি আমার নেতৃত্তে এলাকার যুব সমাজকে সাথে নিয়ে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছি । আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে, জন প্রতিনিধিত্ত্ব করার সুযোগ পেলে এখানে চুরি, ডাকাতি, মাদক দ্রব্যের আখড়া ভেঙ্গে চুরে মাটির সাথে মিশিয়ে দেওয়া হবে আমার কেরোয়ার জনগণ এব্যাপারে আমাকে আন্তরিক ভাবে সহযোগিতা করবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

উল্লেখ্য: গত ১৪ জুলাই রায়পুর উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান কামাল ও ১৬ আগস্ট চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুল করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

কারেন্ট বার্তা/ কেএএল/ মোঃ সোহেল রানা/লক্ষ্মীপুর

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 241
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর