• বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০২:১৯ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লক্ষ্মীপুরে বৃক্ষরোপণ ও ঢেউটিন বিতরণ কেক কাটা ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গৌরীপুরে এতিম শিশুদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ ধর্মপাশায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিনামুল্যে মাস্ক বিতরণ রাজারহাটে সেনাবাহিনীর নিজস্ব রেশন দিয়ে সুস্থ-অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ডাসার উপজেলা প্রেসক্লাবে মিজান সভাপতি, জাফরুল সম্পাদক নির্বাচিত ঘোড়াঘাটে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে স্বেচ্ছাসেবকলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন বকশীগঞ্জে করোনার সংক্রমণ রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম অব্যাহত শ্যামনগরে অর্ধলক্ষাধিক টাকার চিংড়ী বিনষ্ট

লক্ষ্মীপুর জমিসহ পাকা ঘর পাচ্ছে আরও ৫’শ ভূমিহীন পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১ | ৯:২০ pm
                             
                                 

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম ২য় পর্যায়ে লক্ষ্মীপুরে ৫’শ টি ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবার জমিসহ পাকা ঘর পাচ্ছেন। এসব ভূমি ও ঘর উপকারভোগীদের বুঝিয়ে দেওয়ার কার্যক্রম আগামী (২০ জুন) রবিবার থেকে শুরু হবে। ওইদিন সকাল সাড়ে ১০ টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন।

(১৮ জুন) শুক্রবার বিকেলে লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান বিষয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ সফিউজ্জামান ভুঁইয়া এসব তথ্য জানান।

এসময় আরডিসি, লক্ষ্মীপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি হোসাইন আহম্মদ হেলাল, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক সহ গনমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সফিউজ্জামান ভূইয়া জানান, “আশ্রয়নের অধিকার-শেখ হাসিনার উপহার এই স্লোগান নিয়ে আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় লক্ষ্মীপুর জেলা সদর, রায়পুর, রামগঞ্জ, কমলনগর ও রামগতি উপজেলায় ১৭৮৬টি ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সদরে ৫০, রায়পুরে ৫০, রামগঞ্জে ৫০ এবং কমলনগর উপজেলায় ৩৫০টি নির্মাণ করে সর্বমোট ৫০০টি নথি প্রস্তুত করা হয়েছে। অবশিষ্ট ঘরগুলো খুব অল্প সময়ের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হবে। এই প্রকল্পের আওতায় ১ লাখ ৭৫ হাজার পরে বাড়িয়ে ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা ব্যয়ে প্রতিটি বাড়ি নির্মাণ করা হয়েছে। ৪৩৫ বর্গফুটের প্রতিটি ঘরে রয়েছে দুটি বেড রুম, টয়লেট, রান্নাঘর, ও একটি বারান্দা। ঘর ও আশপাশের জমি মিলিয়ে দুই শতক জমি দেওয়া হবে ভূমিও গৃহহীন প্রতিটি পরিবারকে। টিনশেডের এই ঘরে একটি পরিবার স্বাচ্ছন্দে বসবাস করতে পারবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো বলেন, ঘর দেওয়ার জন্য উপকারভোগী নির্বাচনের ক্ষেত্রেও আমরা সঠিকভাবে যাচাই-বাছাই করেছি। যারা প্রকৃত ভূমিহীন তারাই এই সুবিধার আওতায় এসেছেন। আগামী (২০ জুন) রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তাদের মধ্যেই ঘরের দলিল ও চাবি হস্তান্তর করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর