• শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
সুনামগঞ্জে নদীতে ডুবে নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ উদ্ধার ঘোড়াঘাটে প্রতিবন্ধী ভাতার চেক আটক রেখে টাকা দাবীর অভিযোগ ইসলামপুরে গ্রামীন জনপদে শহরের ছোঁয়া সন্ধ্যা নামতেই মেঠপথ আলোকিত মাদারীপুরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে মাড়া গেলেন পুলিশ সদস্য শাল্লায় সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনার আরো এক আসামী গ্রেফতার মনোহরদীতে দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরন করেন এড. হারুনুর রশিদ বকশীগঞ্জে মাহে রমজান উপলক্ষে ব্যারিস্টার সামির ছাত্তারের উদ্যোগে নগদ অর্থ বিতরণ ইসলামপুরে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ আলফাডাঙ্গায় পুকুরে ডুবে পাঁচ বছরের শিশুর মৃত্যু সিরাজদিখানে লকডাউনে দোকান খোলায় ১৪ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

সহিংসতারোধে সভা আহবান পুলিশের

শরণখোলায় ফের নির্বাচনী সহিংসতা পৃথক তিন সংঘর্ষে আহত-৩২, দুই মামলায় আসামী-৬৫

আবু হানিফ, বাগেরহাট
প্রকাশ হয়েছে : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ ২০২১ | ৭:৩১ pm
                             
                                 

বাগেরহাটের শরণখোলায় সোমবার (২২মার্চ) রাত সাড়ে ৯টার দিকে ফের নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের চার জন আহত হয়েছেন। উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের ১নম্বর সোনাতলা ওয়ার্ডের দক্ষিণ সোনাতলা গ্রামে মেম্বর প্রার্থী শফিকুল ইসলাম ডালিম ও জাহাঙ্গীর হাওলাদারের সমর্থকদের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, ডালিমের সমর্থক মজিবর হাওলাদার (৬০) তার দুই ছেলে হেলাল (৩৪) ও কাওসার (২৫) এবং প্রতিদ্বন্দ্বী জাহাঙ্গীরের সমর্থক ইউসুফ আলী হাওলাদার (৫৮)। এদের মধ্যে গুরুতর আহত ডালিমের সমর্থক তিন জনকে ওইরাতে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
থানা সূত্রে জানা যায়, এর আগে গত শুক্রবার (১৯ মার্চ) সকালে ওই ইউনিয়নের ১নম্বর সোনাতলা ও ৫নম্বর উত্তর সাউথখালী ওয়ার্ডে পৃথক সংঘর্ষে অন্তত ২৮জন নারী-পুরুষ আহত হন। এই ঘটনার জেরে ওইদিন রাতে দুটি দোকানে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এসব ঘটনায় ৬৫ জনকে আসামী করে শনিবার শরণখোলা থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের হয়। এনিয়ে পৃথক তিনটি সহিংস ঘটনায় ৩২জন আহত হন। এদিকে, নির্বাচনী সহিংসতারোধে বুধবার বিকেলে আইনশৃঙ্খলা সভা আহবান করেছে পুলিশ।

শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন মেম্বর প্রার্থী জাঙ্গীরের সমর্থক ইউসুফ হাওলাদার বলেন, ওইদিন রাতে স্থানীয় তাফালবাড়ি বাজার থেকে বাড়িতে যাচ্ছিলাম। তখন রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টা বাজে। বাড়ির কাছাকাছি গেলে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা ৮-৯জন লোক আমার ওপর হামলা চালায়। তারা ধারালো দা দিয়ে আমার মাথায় কোপ দিলে আমি তাদের হাত থেকে দা ছিনিয়ে নেই। নিজে বাচার স্বার্থে এর পর কী ঘটেছে তা বলতে পারছি না।
মেম্বর প্রার্থী শফিুকল ইসলাম ডালিম বলেন, প্রতিপক্ষের দায়ের করা মমালায় আমার কর্মীরা সোমবার কোর্ট থেকে জামিন নিয়ে রাতে বাড়িতে গেলে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর লোকেরা তাদের ওপর হামলা চালায়। তারা আমার তিন সমর্থকে হত্যার উদ্দেশে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। রাতে পুলিশ গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়। আহতরা বর্তমানে খুলনা মেক্যিালে চিকিৎসাধীন। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, নির্বাচনী সহিংসতা যাতে না ঘটে সেজন্য পুলিশ তৎপর রয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষে সহিংসতারোধ ও এলাকার শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে বুধবার বিকেলে সোনাতলা মডেল বাজারে পুলিশের পক্ষ থেকে সকল প্রার্থী এবং তাদের কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে সভা আহবান করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 9
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর