• শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০২:১৩ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
মতলব পাকা সড়কে বিরাট গর্ত ॥ ক্ষতিগ্রস্থ স্থান পরিদর্শনে উপজেলা প্রকৌশলী ও স্থানীয় আ’লীগ নেতৃবৃন্দ বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্যকর্মীদের ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য সুরক্ষা সরঞ্জাম প্রদান মাগুরায় ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল পাবনায় বালু তোলার দায়ে ৫ জনের জরিমানা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ঐক্য প্লাটফর্মের সম্মাননা স্মারক প্রদান পাইকগাছায় জলদস্যু রুস্তোম আটক, অস্ত্র গুলি উদ্ধার শুক্রবার থেকে মধুমতি এক্সপ্রেস চলবে ফরিদপুর-ভাঙ্গা রুটে বোয়ালমারীতে মোবাইল চোর চক্রের দলনেতা  গ্রেফতার বাগেরহাটে এপেন্ডিসাইটিস অপারেশনে যুবকের মৃত্যু নিয়ে গুঞ্জন মণিরামপুরে রাস্তার কাজের নামে মেম্বারের অর্থ বাণিজ্য

‘জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান আসামী না হয়ে স্বাক্ষী !’

শাহজাদপুরের এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের ৩০ লক্ষাধিক টাকা গায়েব

মাসুদ মোশাররফ, শাহজাদপুর(সিরাজগঞ্জ)
প্রকাশ হয়েছে : রবিবার, ৪ অক্টোবর ২০২০ | ৪:৪৫ pm
                             
                                 

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের অনুকূলে স্থানীয় সরকার বিভাগের লোকাল গভর্ন্যান্স প্রজেক্টের (এলজিএসপি-৩) ২ অর্থবছরে মৌলিক থোক (বিবিজি) বরাদ্দকৃত ৩০ লাখ ১৫ হাজার ৮’শ ৪৪ টাকা জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের ব্যাংক একাউন্ট (সোনালী ব্যাংক, শাহজাদপুর শাখা, চলতি হিসাব নং- ৪২১৩৫৩৩০০৮৯৫৫ ) থেকে গায়েবের ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনা ফাঁস হলে সিরাজগঞ্জ এলজিএসপি-৩ এর ড্রিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর (ডিএফ) মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান ঘটনার তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ায় তিনি বাদী হয়ে জালালপুর ইউপির সাবেক সচিব এস এম জিয়াউল করিম (৪১) ও অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে এনায়েতপুর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন। এজাহারে জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সুলতান মাহমুদসহ সোনালী ব্যাংক শাহজাদপুর শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক রফিকুল ইসলাম, সিনিয়র অফিসার এমদাদুল হাসান জুয়েল, ইউপি সচিব শুভজিৎ রায় ও মহিলা ইউপি সদস্য সাহেলা বেগমকে স্বাক্ষী করা হয়েছে। বিজ্ঞ আইনজীবীর মতে, ‘ইউপি চেয়ারম্যান, সচিব ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্যের যৌথ স্বাক্ষরে পরিচালিত জালালপুর ইউপির ব্যাংক হিসাব থেকে গত দেড় বছরের বিভিন্ন সময়ে ১’শ ২৯ টি যৌথ স্বাক্ষরিত চেকের মাধ্যমে ৩০ লক্ষাধিক সরকারি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় চেকে স্বাক্ষরকারী ইউপি চেয়ারম্যান ও মহিলা ইউপি সদস্য কোন ভাবেই এ পুকুর চুরির দায় এড়াতে পারেন না।’

থানায় দায়েরকৃত এজাহারসূত্রে প্রকাশ, ‘গত ১৭ সেপ্টম্বর দুপুরে বাদী মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদ নিয়মিত পরিদর্শনকালে ক্যাশবই যাচাইকালে হিসাবে অসঙ্গতি দেখতে পেয়ে সোনালী ব্যাংক শাহজাদপুর শাখায় খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন উক্ত ইউনিয়ন পরিষদের ব্যাংক হিসাবে মোট বরাদ্দের ৩০ লাখ ১৫ হাজার ৮’শ ৪৪ টাকার মধ্যে মাত্র ৮ টাকা জমা রয়েছে।

গত ২০১৮-২০১৯ ও ২০১৯-২০২০ এ দুই অর্থবছরে স্থানীয় সরকার বিভাগের এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় শাহজাদপুরের জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের অনুকূলে দুই কিস্তিতে মৌলিক থোক বরাদ্দকৃত ১৫ লাখ একান্ন হাজার ৮’শ ৮২ টাকা ও ১৪ লাখ ৬৩ হাজার ৯’শ বাষট্টি টাকাসহ সর্বমোট টাকা ৩০ লাখ ১৫ হাজার ৮’শ ৪৪ টাকা সাবেক সচিব এস এম জিয়াউল করিম অজ্ঞাত লোকদের সহায়তায় গত ২০১৯ সালের ৭ মার্চ থেকে চলতি বছরের ৪ আগষ্ট পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে জালালপুর ইউপির ব্যাংক একাউন্টের ১’শ ২৯ টি চেকের মাধ্যমে উত্তোলন করে সোনালী ব্যাংক শাহজাদপুর শাখায় সাবেক সচিবের নিজ নামীয় সঞ্চয়ী হিসাবে (নং-৪২১৩৪৩৪১৩৩৯০১) স্থানান্তর করে আত্মসাৎ করেছেন।

বিষয়টি তাৎক্ষণিক ভাবে বাদী মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান স্থানীয় সরকার বিভাগের এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালককে (যুগ্ম সচিব) মোবাইল ফোনে অবহিত করেন। সেইসাথে তদন্তকাজ শেষ করে ঘটনার সাথে জড়িত ইউপি সচিব ও অজ্ঞাতদের কাছ থেকে জরুরী ভিত্তিতে তছরূপকৃত সরকারি অর্থ উদ্ধার ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানিয়ে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। এছাড়াও বাদী এজাহারের অনুলিপি স্থানীয় সরকার বিভাগের এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালকে (যুগ্ম সচিব), সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সিরাজগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক ও শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে প্রদান করেন।’

এ বিষয়ে জালালপুর ইউপি চেয়ারম্যান হাজী সুলতান মাহমুদ জানান,‘আমার স্বাক্ষর জাল করে সাবেক সচিব টাকাগুলো তার নিজ ব্যাংক একাউন্টে স্থানান্তর করে আত্মসাত করেছেন।’

গতকাল রোববার দুপুরে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে স্থানীয় সোনালী ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ শফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান,‘জাল স্বাক্ষরের কোন আলামত পাওয়া যায়নি। জাল স্বাক্ষরের মাধ্যমে টাকা উত্তোলনের কোন সুযোগ নেই। সংশ্লিষ্টদের স্বাক্ষর যাচাই করে নিশ্চিত হবার পরই টাকা প্রদান করা হয়েছে।’

এদিকে, প্রায় দেড় বছর সময় ধরে জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের ব্যাংক একাউন্ট থেকে টাকা উত্তোলন ও আত্মসাতের বিষয়টি জানাজানি হলে ইউনিয়নবাসীর মনে ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। ঘটনার সাথে সম্পৃক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবিও জানিয়েছেন তারা।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 30
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর