• রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪৩ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম

শাহজাদপুরে নিত্যপণ্যের ঊর্ধ্বমূল্যে দিশেহারা সাধারন মানুষজন

মাসুদ মোশাররফ, শাহজাদপুর(সিরাজগঞ্জ)
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ৭ এপ্রিল ২০২১ | ১২:২২ am
                             
                                 

শাহজাদপুরে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য দিনে দিনে বেড়েই চলেছে। লকডাউনের সুযোগে ও আসন্ন রমজানকে উপলক্ষ করে স্বল্প সময়ের ব্যবধানে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য আরেক দফা বৃদ্ধি করেছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। নতুন করে লকডাউনে উপজেলার অনেক পেশাজীবীরা আবারও বেকার হয়ে পড়েছে। একদিকে, আয় না থাকায় ও অন্যদিকে ব্যয় বেড়ে যায়ওায় উপজেলার নিম্ম আয়ের ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষজন ও দিনমজুরেরা তাদের পরিবার পরিজনের ভরনপোষণের প্রশ্নে মহাভাবনায় পড়েছে। সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন উপজেলার খেটে খাওয়া মেহনতী মানুষেরা। নিয়মিত বাজার তদারকীর অভাবে দিনে দিনে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল আকাশচুম্মি ধারণ করছে বলে এলাকাবাসী মনে করছেন।
এলাকাবাসী জানায়, ৩/৪ দিন আগেও পেঁয়াজের কেজি ছিল ২৮ টাকা গতকাল তা বেড়ে ৩৫-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ৫০ টাকার রসুন ৬০ টাকা। ৫০ টাকার আদা ৬০-৬৫ টাকা। ১৫ টাকার আলু ২০ টাকা। বেড়েছে ভোজ্য তেলের দামও। চাল প্রকারভেদে কেজিতে ২/৩ টাকা বেড়েছে। বোতলজাত ও খোলা সয়াবিন তেলও লিটারে বেড়েছে ৩/৪ টাকা। এছাড়াও কাঁচামালের দামও বাড়িয়েছে বিক্রেতারা। অন্যদিকে, ব্রয়লার সোনালী ও দেশি মুরগির দামও বেড়েছে কেজিপ্রতি ১০ থেকে ২০ টাকা। ব্রয়লার বিক্রি হচ্ছে ১৩৫-১৪০ টাকা, সোনালী মুরগি ২৭০-৩০০ ও দেশি মুরগি ৪০০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। কেজিতে ২০/৩০ টাকা বেড়েছে গরুর মাংসের। ছোলা ও চিনি কেজিতে ২/৩ টাকা বেড়ে যথাক্রমে ৬৫ টাকা ও ৬৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। স্বল্প সময়ের ব্যবধানে আবারও নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন উপজেলার অল্প আয়ের মানুষ। অনেকেই মূল্য বৃদ্ধিতে ক্ষোভ প্রকাশ করলেও লকডাউনের কথা চিন্তা করে খরচ বেশি করে কেনাকাটা করছেন। বাজার দর নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাধারণ মানুষ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 1
    Share


এই বিভাগের আরো খবর