• বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৬:৩৫ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

শ্যামনগরে অপহরণের পর ধর্মান্তরিত করে বিয়ের অভিযোগে শিক্ষক আটক

রনজিৎ বর্মন, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা)
প্রকাশ হয়েছে : শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১ | ১২:০৮ am
                             
                                 

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় হিন্দু সম্প্রদায়ের এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করার অভিযোগে উপজেলার নুরনগর আশালতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামীম আহম্মেদকে আটক করেছে শ্যামনগর থানা পুলিশ।

প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার কৈয়া বাজার থেকে শামীম আহম্মেদকে আটক করা হয় এবং কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়। শামীম আহম্মেদ উপজেলার নুরনগর ইউপির আলী আহসান গাজীর ছেলে।

৩ এপ্রিল কালিগঞ্জ উপজেলার কাটুনিয়া রাজবাড়ী ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি ১ম বর্ষের এক ছাত্রীকে অপহরণ করে বাড়ী থেকে পালিয়ে যায় প্রধান শিক্ষক শামীম। ৭ এপ্রিল খুলনা নোটারী পাবলিক কার্যালয়ে বসে শামীম আহম্মেদ কলেজ ছাত্রীকে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করছেন বা নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করছেন এমন ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হিসাবে ছড়িয়ে পড়ে।

শুক্রবার দুপুরে কালিগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম মোহাইমেনুর রশিদ সাংবাদিকদের সাথে ব্রিফিংকালে বলেন এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রীর পিতা শ্যামনগর থানায় অপহরণ ও ধর্মান্তরিত করার অভিযোগ নিয়ে শামীমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে প্রধান শিক্ষক শামীমকে থানা পুলিশ প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আটক করেন।

অপরদিকে ঘটনাটি জানাজানি হলে এলাকাবাসী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে অপসারণের দাবীতে শামীম আহম্মেদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদসভার আয়োজন করেন। জানা যায় বিদ্যালয়ের এসএমসি কমিটি এই ঘটনার প্রেক্ষিতে এক সভা আহব্বান করে প্রধান শিক্ষক শামীম আহম্মেদকে বিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিস্কার করা হয়েছে। আরও জানা যায় শামীম আহম্মেদের এটি চতুর্থ বিয়ে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 4
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর