• বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ০১:২৬ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে লক্ষ্মীপুরে বৃক্ষরোপণ ও ঢেউটিন বিতরণ কেক কাটা ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে লক্ষ্মীপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গৌরীপুরে এতিম শিশুদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ ধর্মপাশায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বিনামুল্যে মাস্ক বিতরণ রাজারহাটে সেনাবাহিনীর নিজস্ব রেশন দিয়ে সুস্থ-অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ডাসার উপজেলা প্রেসক্লাবে মিজান সভাপতি, জাফরুল সম্পাদক নির্বাচিত ঘোড়াঘাটে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও ঢেউটিন বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে স্বেচ্ছাসেবকলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন বকশীগঞ্জে করোনার সংক্রমণ রোধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম অব্যাহত শ্যামনগরে অর্ধলক্ষাধিক টাকার চিংড়ী বিনষ্ট

শ্যামনগরে গত দুই দিনে কোভিড-১৯ আক্রান্ত ১৪ জন

রনজিৎ বর্মন, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা)
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১ | ৭:৪১ pm
                             
                                 

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় গত দুই দিনে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ জন। শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের রেপিড এন্টিজেন টেষ্টের তথ্য অনুযায়ী ২৩ জুন ৯ জন ও ২৪ জুন ৫ জন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তথ্য মতে ২৩ জুন রেপিড এন্টিজেন টেষ্টে ১৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয় তার মধ্যে ৯ জন করোনা পজিটিভ ও ২৪ জুন ৩১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫ জন করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। পজিটিভ রোগীদের বয়স অধিকাংশ ৫০ বছর বা তদুর্দ্ধ। আক্রান্তদের মধ্যে নারী ,পুরুষ সকলে রয়েছেন।

জানা যায় গত ৫ জুন থেকে ২৪ জুন পর্যন্ত শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেপিড এন্টিজেন টেষ্টে ৩৪৩ জনের নমুনা পরীক্ষার পর ৭৩ জনের কোভিড-১৯ পজিটিভ পাওয়া গেছে। তবে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেপিড এন্টিজেন টেষ্টে যাদের কোন ফলাফল পাওয়া যায়নি বা নেগেটিভ রেজাল্ট আসছে এ সকল ব্যক্তিদের নমুনা সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে পিসিআর ল্যাবে সেখানে কয়েক জনের নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ ফলাফল পাওয়া যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তথ্য অনুযায়ী এ পর্যন্ত শ্যামনগরে করোনায় ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে স্থানীয়দের মতে কোভিড-১৯ পরীক্ষা ছাড়াই উপসর্গ নিয়ে মৃতের হার আরও বেশী।

শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার বিপ্লব কুমার দে বলেন কোভি-১৯ পরীক্ষা করানোর হার খুব কম। অনেক মানুষ পরীক্ষার বাইরে থাকছে।

এ দিকে সাতক্ষীরা জেলায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে ২৪ জুন পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা করা হয়। এই সময়সীমা আরও বৃদ্ধি পেতে পারে বলে অনেকে মনে করছেন। উপজেলায় সকাল ৮টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যদির দোকান খোলা রাখার কথা বলা হলেও অন্যান্য ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার চেষ্টায় উপজেলায় সকল বাজারে মানুষের সমাগম বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সহ অন্যান্য ক্ষেত্রে মন্তব্য করেছেন।

করোনা সংক্রমণ কমাতে মানুষকে সচেতন হওয়া প্রয়োজন সাথে সাথে কঠোর লকডাউন ব্যবস্থা প্রয়োজন বলে অনেকে মন্তব্য করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর