• বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২০, ১১:০৮ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

শ্যামনগরে নকশীকাঁথার সাফল্যগাঁথা নারীদের সংবর্ধনা ও ভিডিও ডুকুমেন্টারী প্রদর্শন

রনজিৎ বর্মন, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা)
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ | ১২:৫৫ am
                             
                                 
ছবি- শ্যামনগরে নকশীকাঁথার সাফল্যগাঁথার নারীদের সংবর্ধনা প্রদান করছেন পিপি এ্যাড.জহুরুল হায়দার বাবু।

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় বৃহস্পতিবার বিকালে নকশীকাঁথা মহিলা সংগঠনের আয়োজনে ভিএসও বাংলাদেশের সহায়তায় গ্রামীণ হোটেল মিলনায়তনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বিভিন্ন বিষয়ে সাফল্যগাঁথা নারীদের সংবর্ধনা ও তাদের কর্ম ভিডিও ডুকুমেন্টারী প্রদর্শন করা হয়।

নকশীকাঁথার সভাপতি শাহানা হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পিপি ও শ্যামনগর সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড.জহুরুল হায়দার বাবু।

স্বাগত বক্তব্য সহ সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নকশীকাঁথার পরিচালক চন্দ্রিকা ব্যানার্জী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা জহুরুল ইসলাম,সাংবাদিক রনজিৎ বর্মন,তথ্য আপা শিরিন শিলা,মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের প্রশিক্ষক শাহানা আক্তার।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাফল্যগাঁথা নারী অষ্টমী মালো,সুপর্ণা কর্মকার,তাসলিমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন গ্রামীণ নারীরা সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রেখে চলেছে। বাংলাদেশের সকল পর্যায়ে নারীদের পদচারণা বেড়ে চলেছে। ফলে বিশে^ আমাদের দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল হচ্ছে। বক্তারা নকশীকাঁথা সংগঠনের এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান।

মুজিব বর্ষ স্বরণে ৩৫ জন গ্রামীণ নারীকে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস উপলক্ষ্যে বিভিন্ন বিষয়ে অবদানের জন্য সম্মানননা ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

উপজেলার বিভিন্ন ইউপির সম্মাননা প্রাপ্ত সাফল্যগাঁথা নারীরা হল চন্দনা চক্রবর্তী,তাছলিমা খাতুন,গীতা রানী,শ্রী দেবী মন্ডল,মাসকুরা পারভীন,সুফিয়া খাতুন,অর্পণা কর্মকার,রেখা রানী গাইন,শাহানা হামিদ,হাছিনা খাতুন,মমতাজ বেগম,লাইলী বেগম,তানিয়া আক্তার,সীমা গাইন,অষ্টমী মালো,ছায়রা খাতুন,আফরোজা বেগম,ঐশ^র্য্য কর্মকার,সুপর্ণা কর্মকার,ছফুরা বেগম,শিপ্রা বিশ^াস,মনোয়ারা আক্তার মিলি,পূর্ণিমা পাল,পার্বতী পাল,শিখা কর্মকার,শেফালী খাতুন,তাছলিমা খাতুন,শেফালী পারভীন,লক্ষ্মী বৈরাগী,অরুণা রানী,রাবেয়া খাতুন,তারামণি বিবি,মেনকা বিশ^াস,সন্ধ্যা সরদার ও মরিয়ম বিবি।

নকশীকাঁথার পরিচালক চন্দ্রিকা ব্যানাজী বলেন সম্মাননা প্রাপ্ত নারীরা কৃষি,ক্ষুদ্র ব্যবসা,সূচি শিল্প,দর্জ্জি,প্রতিমা তৈরী,গবাদি পশু পালন,মৎস্য চাষ,কেঁচো কম্পোষ্ট তৈরী,বাঁশ বেতের কাজ,কম্পিউটার শিক্ষা,জরি বুটিক কাজ সহ অন্যান্য বিষয়ে সাফল্য অর্জন করায় এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে একই সাথে নকশীকাঁথার সপ্তবার্ষিকী প্রতিবেদন ও সাফল্যগাঁথা নারীর সিডির মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 4
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর