• রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:১১ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

সাতক্ষীরায় নিখোঁজের ২১ ঘন্টা পর শিশু মেহেদী হাসানের মরদেহ উদ্ধার

শেখ আবু মুছা, সাতক্ষীরা
প্রকাশ হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ১৯ আগস্ট ২০২১ | ১২:২২ am
                             
                                 

সাতক্ষীরা কলারোয়ায় ৭ বছর বয়সী মেহেদী হাসান নামের এক শিশু নিখোঁজের ২১ ঘন্টা পর তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে বাড়ির পাশে হেলাতলা ইউনিয়নের দামোদরকাটি মাঠপাড়া সংলগ্ন সাড়াতলা রাস্তার ধারে পাটের আটির নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর আগে মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) বিকালে শিশুটি নিখোঁজ হয়।
নিহত শিশু মেহেদী হাসান (৭) উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়নের দামোদরকাটি মাঠপাড়া এলাকার ইজিবাইক চালক মুহিদুল ইসলামের ছেলে।
শিশুটির বাবা মহিদুল ইসলাম জানান, প্রতিদিনের ন্যায় মঙ্গলবার বিকালে ইজিবাইক নিয়ে কাজের উদ্দেশ্যে বাহিরে বের হওয়ার পর সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে তার স্ত্রী খাদিজা খাতুনের ফোন আসে মেহেদীকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাৎক্ষণিক বাড়িতে এসে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় বিভিন্ন স্থানে এবং আশপাশে পুকুর ও জলাশয়ে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। শিশুর মা’ খাদিজা খাতুন ও প্রতিবেশী আসমা খাতুন জানান, মেহেদী ও একই বয়সী রাকিব মঙ্গলবার বিকালে দামেদরকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে খেলতে গিয়েছিল। খেলা শেষে রাকিব বাড়িতে আসলেও মেহেদীকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যায় নি। সন্ধ্যায় বড়িতে না আসলে সব জায়গাতে খোঁজাখুজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। আজ সাড়াতলা রাস্তার ধারের রাখা কয়েকটি পাটের আটির নিচে স্থানীয়রা মেহেদীর মরদেহ মাথা বের করা অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়।
নিহত মেহেদী হাসানের খেলার সাথী শিশু রাকিব হোসেন জানায়, গতকাল বিকালে তারা দুজন এক সাথে খেলা শেষ করে সে বাড়িতে এসে তার মায়ের কাছে ব্রজবাকসাতে যায়। কিন্তু মেহেদী কোথায় ছিল সেটা সে জানে বলে আরো জানায়।
কলারোয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর খায়রুল কবীর জানান, শিশুর নিখোঁজের ঘটনায় গতকাল তার পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করেছিলেন। আজ দুপুরে পাটের আটির নিচ থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় থানায় এখনও পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ দেননি। তবে ঘটনার তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে ওসি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর