• মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৭:০২ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
শিগগির বাংলাদেশে ‘কোভ্যাক্সিন’র ট্রায়াল চালাতে চায় ভারত সাতক্ষীরায় জুলাই মাসে করোনায় ১৫, উপসর্গে ২০৫ জনের মৃত্যু গোবিন্দগঞ্জ ছিনতাইকৃত মহিষ আক্কেলপুরে উদ্ধার রবিউল এবার পেল সুচিকিৎসার ব্যবস্থা, সমাজসেবা থেকে পেল আর্থিক সহায়তা বোয়ালমারীতে জেলা পরিষদ বানিজ্যিক ভবনের কক্ষ থেকে দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার সুন্দরগঞ্জে টিকা সম্প্রসারণে অবহিতকরণ সভা মাধবপুরে কঠোর নজরদারিতে এসিল্যান্ড অভিযানে ১৩টি মামলায় জরিমানা সেই পরিত্যক্ত ঘরেই মারা গেলেন জনপ্রিয় শিক্ষক যত্রতত্র ফেলা হচ্ছে বর্জ্য, হুমকির মুখে পরিবেশ বকশীগঞ্জে ৩৩৩ ফোন ও খুদে বার্তা পাঠিয়ে খাদ্য সহায়তা পেয়েছেন ১৪০০ পরিবার!

সুনামগঞ্জে আহত পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু: অজ্ঞাত তরুনের লাশ উদ্ধার

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, হাওরাঞ্চল, সুনামগঞ্জ
প্রকাশ হয়েছে : শুক্রবার, ১৬ জুলাই ২০২১ | ৯:৩৭ pm
                             
                                 

সুনামগঞ্জে সড়ক দূঘটনায় আহত এক পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু হয়েছে। মৃত কনস্টেবলের নাম- জনি মিয়া (২৮)। সে জামালপুর জেলার সদর উপজেলার বেলবিলা গ্রামের মৃত আকরাম হোসেনের ছেলে।
আজ শুক্রবার (১৬ জুলাই) দুপুরে সিলেটের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থার ওই পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু হয়।
এরআগে গত মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) সকালে মোটর সাইকেল যোগে জেলা পরিষদের নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করতে যাওয়ার সময় জগন্নাথপুর-সুনামগঞ্জ সড়কের হেলিপ্যাড এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গুরুতর আহত হন কনস্টেবল জনি মিয়া। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্র্তি করা হয়। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেটে পাঠানো হয়। কনস্টেবল জনি মিয়া জেলার জগন্নাথপুর থানায় কর্মরত ছিলেন।
অপরদিকে আজ শুক্রবার (১৬ জুলাই) দুপুরে জেলার ধর্মপাশা উপজেলার পাইকুরহাটি ইউনিয়নের মাসকান্দা গ্রামের সামনে অবস্থিত আতলা হাওর থেকে অজ্ঞাত এক তরুনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার বয়স অনুমান ২০ থেকে ২২বছর হবে। তার পড়নে টি-শাট ছিল।
পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অজ্ঞাত তরুনের লাশ উদ্ধারের পর বিকেলে ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। কিন্তু ওই মৃত তরুনের পরিচয় খোঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা বলে পুলিশ জানিয়েছে।
জগন্নাথপুর থানার ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী ও ধর্মপাশা থানার ওসি খালেদ চৌধুরী সাংবাদিকদের এই পৃথক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর