• শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

সুনামগঞ্জে এতিমখানা ও মাদ্রাসার চাঁদা উত্তোলন, গ্রেফতার-৩

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, হাওরাঞ্চল, সুনামগঞ্জ
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ৭:৩০ pm
                             
                                 

সুনামগঞ্জে এতিমখানা ও মাদ্রাসার নামে চাঁদা উত্তোলনের অপরাধে ৩ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃ যুবকরা হলো- কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার মালিপাড়া গ্রামের ছালেহ রহমানের ছেলে আল আমিন (২৫), একই গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে মোঃ আকিবুর রহমান (১৮) ও মোঃ ইসলাম উদ্দিনের ছেলে জুনাইদ উদ্দিন (২০)।

আজ বুধবার (১৭ই ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টায় গ্রেফতারকৃত ৩ যুবককে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজাতে পাঠানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার (১৬ই ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে পৃথক স্থান থেকে ৩ যুবককে পৃথক ভাবে গ্রেফতার করা হয়।

এব্যাপারে পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়- এতিমখানা ও মাদ্রাসার ছাত্রদের জন্য কোরআন শরীফ, পাঞ্জাবী ও পাগড়ীসহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় মালামাল কেনার কথা বলে সুনামগঞ্জে দীর্ঘদিন যাবত চাঁদা উত্তোলন করছিল উপরের উল্লেখিত ৩যুবক। প্রতিদিনের মতো গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পৌরশহরের ষোলঘর এলাকার দোকানপাট ও বাসা-বাড়ি থেকে একাএকা চাঁদা উত্তোলন করতে যায় জুনাইদ উদ্দিন। ওই সময় তার আচার-আচারণ সন্দেহ জনক দেখে স্থানীয় জনতা আটক করে। এঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জুনাইদকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়। পরে তার দেওয়া তথ্য অনুয়ারী পৌরশহরের কালিবাড়ি সড়কে অবস্থিত শামীমাবাদ আবাসিক হোটেল অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের আরো দুই সদস্য আকিব রহমান ও আল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়।

এব্যাপারে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শহিদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন- কিশোরগঞ্জ থেকে প্রতারক চক্রের ৫-৭জনের একটি দল বেশ কিছুদিন আগে সুনামগঞ্জে আসে। তারা বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্টানের নাম ব্যবহার করে চাঁদা উত্তোলন করছিল। গ্রেফতারকৃত ৩ প্রতারকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এই চক্রের অন্য সদস্যদেরকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 3
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর