• বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

সুন্দরগঞ্জে তালাভেঙ্গে মাদ্রাসায় দুর্ধর্ষ চুরি

আক্তারবানু ইতি, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা)
প্রকাশ হয়েছে : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১ | ৬:২৪ pm
                             
                                 

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের সমস গ্রামে অবস্থিত সমস ইসলামিক কারিগরি মাদ্রাসা ভবনের দরজার তালাভেঙ্গে দুর্ধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়েছে।
সোমবার বিকেলে সমস ইসলামিক কারিগরি মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সদস্য নুরুল হুদাসহ স্থানীয়রা জানান, গত ১০ এপ্রিল দিনগত গভীর রাতে মাদ্রাসা ভবনের দরজায় লাগানো তালা ভেঙ্গে বিভিন্ন মালামাল চুরি হয়ে যায়। পরদিন জানতে পেয়ে মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদের পক্ষে নুরুল হুদা (ম্যানেজিং কমিটির সদস্য) চুরি যাওয়া মালামালের বর্ণনা উল্লেখ পূর্বক থানায় এজাহার পত্র দাখিল করেন। অদ্যবধি এ চুরির রহস্য উদঘাটন না হওয়ায় শঙ্কিত ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, শিক্ষার্থী, শিক্ষকসহ স্থানীয় সচেতন মহল। এ সময় শিক্ষক-শিক্ষার্থী, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দসহ স্বাক্ষীগণ শঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, এ মাদ্রাসাটি ২০১৪ সালে মরহুম আঃ রাজ্জাক ইঞ্জিনিয়ার ব্যক্তিগত উদ্যোগে সমস ইসলামিক হাফিজিয়া মাদ্রাসা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেন। তখন থেকে আবাসিক-অনাবাসিক শিক্ষার্থীরা অংশ গ্রহণ করে শিক্ষা অর্জন করছে। সমস্তরূপেই ম্যানেজিং কমিটির সদস্যগণের অর্থায়নে পরিচালিত হওয়ায় মাদ্রাসার বিল্ডিং ভবনের দরজায় লাগানো তালা ভেঙ্গে চুরি সংগঠিত হলে এটা অবিশ্বাস্য হলেও সত্য। চলমান লকডাউন পরিস্থিতিতে প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থী ও শিক্ষকসহ সংশ্লিষ্ট সকলেই নিজ নিজ অবস্থানে রয়েছে। এই সুযোগে পাকা গৃহ থেকে মালামাল চুরি হয়ে যায়। এনিয়ে এজাহার করা হলেও তা রেকর্ড হয়নি। এমনকি, মালামালা উদ্ধারসহ ঘটনা সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার করা হয়নি। এনিয়ে কথা হলে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাশেদুল ইসলাম জানান, ৪টি সিলিং ফ্যান, সেচ মটর, চালসহ যেসব মামলামাল চুরি হয়ে গেছে তা উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি বা ব্যক্তিদেরকেও গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তদন্ত কাজ অব্যাহত রয়েছে।
থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহিল জামান এজাহার প্রাপ্তির কথা জানিয়ে বলেন, এ ঘটনায় তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার ও এ ঘটনার সঙ্গে জড়িদতের গ্রেপ্তারে পুলিশের পক্ষ থেকে তদন্ত ও অভিযান চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 1
    Share


এই বিভাগের আরো খবর