• রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

সুন্দরগঞ্জে হরিপুর সপ্রাবি’র ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

আক্তারবানু ইতি, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা)
প্রকাশ হয়েছে : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১০:১২ pm
                             
                                 

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হরিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ’শৌচাগারে বঙ্গবন্ধুর ছবি, সাংবাদিক দেখে সরালেন দপ্তরি’ শিরোনামের একটি সংবাদের প্রেক্ষিতে ৩ কার্যদিবসের মধ্যে সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।
জানা যায়, রবিবার বিকালে উপজেলা নির্বহী অফিসার মোহাম্ম আল-মারুফ সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহমুদ আল হাসানকে আহবায়ক করে ৩ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি গঠন করেন। কমিটির অপর ২ সদস্য হলেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার একেএম হারুন-উর-রশিদ ও একাডেমিক সুপারভাইজার বেলাল হোসেন। ঘটনা সূত্রে জানা যায়, উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আঃ আজিজ সরকার বিগত ২০১৮ সাল থেকে কর্তব্যরত থাকায় ৩-৪ মাস আগে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠন করেন। করোনাকালে শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকার সুবাদে মনগড়ামত এ কমিটি গঠন করেন। কমিটির সভাপতি হরিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম তিনি পার্শ্ববর্তী আরও একটি বে-সরকারী রেজি: প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি। এ নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, কমিটি গঠনের এ পর্যন্ত হরিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোন মিটিং-সিটিং হয়নি। এমনকি, ওয়াশরুমে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানানোর ব্যাপারে কোন কথা বা সিদ্ধান্তও হয়নি। প্রধান শিক্ষক আঃ আজিজ সরকার জানান, অফিস আদেশ মোতাবেক বিদ্যালয়ের ঐ রুমে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানানো হয়। তবে, কোন লিখিত আদেশ ছিল না। তিনি স্থানীয় একাধিক দৈনিকে প্রতিবাদে উল্লেখ করেছেন- ‘ঐ কক্ষটি শ্রেণিকক্ষ হিসেবে ব্যবহার করা হবে’। তিনি আরও জানান, ওয়াশরুমে বঙ্গবন্ধুর ছবি সংক্রান্ত এসব ঘটনা বাদ দেন তো, যা হবার তা হয়েছে। এগুলো ‘পাষ্ট ইজ পাষ্ট’। বিদ্যালয়ে ইউএনও স্যার এসেছিলেন। এ সংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে প্রধান শিক্ষক ব্যর্থ হন। উপজেলা শিক্ষা অফিসার একেএম হারুন উর রশিদ জানান,ওয়াশরুমে বঙ্গবন্ধুর ছবি টানানোর কোন নির্দেশ নেই।
হরিপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মঞ্জুরুল হক সরকার প্রধান শিক্ষক আঃ আজিজের শাস্তি দাবি করে জানান, ওয়াশরুমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছবি টানানোর জন্য প্রয়োজনে অত্র ইউনিয়ন আ’লীগের পক্ষ থেকে প্রধান শিক্ষক আঃ আজিজসহ অন্যান্যদের বিচারের দাবিতে আন্দোলন করা হবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আল-মারুফ জানান, বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছি। ঐ রুমটা (সংশ্লিষ্ট রুমটা) শ্রেণিকক্ষের সৌন্দর্য বহন করেনা। তাই, ঐ রুমে বঙ্গবন্ধুর ছবি রাখা ঠিকনা। এ ব্যাপারে ৩ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি কমিটি গঠন পূর্বক ৩ কার্যদিবসের মধ্যে সরে জমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন


এই বিভাগের আরো খবর