• সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ০৩:৫২ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
লকডাউনের নবম দিনে সাতক্ষীরায় পুলিশের কঠোর অবস্থান ২১ জুন লক্ষ্মীপুর-২ উপ-নির্বাচন: আওয়ামী লীগের বিরামহীন প্রচারণা প্যাঁচার অভয়াশ্রম সাগরদিঘি শাহজাদপুরে ডুবো রাস্তায় বদলে গেছে লাখো মানুষের জীবনমান লক্ষ্মীপুরে পল্লী বিদ্যুৎ কর্মচারীর মৃত্যু: স্বজনদের দাবি পরিকল্পিত হত্যা সুন্দরগঞ্জে ৬ জুয়াড়ি গ্রেপ্তার শরণখোলায় ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়ি এসে চেক দিলেন জেলা প্রশাসক শত বছরের পুরনো রাস্তা বন্ধ করে অন্যের জমি দখল করে রাস্তা নির্মাণের অভিযোগ বাগেরহাটে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা (অনুর্ধ্ব-১৭) গোল্ডকাপ ফুডবল টুনামেন্টের উদ্বোধন মাগুরার শ্রীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ আহত-৩

সুন্দরগঞ্জে ৩ দোকান উচ্ছেদ করে পাঠাগার নির্মাণ: আহত-৭

আক্তারবানু ইতি, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা)
প্রকাশ হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১ | ৫:২৯ pm
                             
                                 

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ছিলামণি বাজারে ৩ দোকান উচ্ছেদ করে পাঠাগারের গৃহ-নির্মাণের ঘটনায় মসজিদে ঢুকে দোকান মালিকদেরসহ পরিবারের লোকজনকে ব্যাপক মারপিটের ঘটনা ঘটেছে।
বিভিন্ন সূত্রে জানাযায়, গত শুক্রবার (৯ এপ্রিল) মসজিদে নামাজ আদায়ের সময় উপজেলার কঞ্চিবাড়ি ইউনিয়নের দুলাল গ্রামের মৃত আঃ সাত্তার মিয়ার ছেলে আঃ রাজ্জাক মিয়া ও আঃ সালাম ওরফে মন্টু মেম্বরের নেতৃত্বে সংঘবদ্ধ একটি দল স্থানীয় জামে মসজিদে অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে ব্যাপক মারপিট করে। এতে উক্ত বাজারের দোকান মালিক পার্শ্ববর্তী শ্রীপুর ইউনিয়নের বোয়ালী গ্রামের মৃত আমির হোসেনের পুত্র নয়া মিয়া, দুলা মিয়া ও মুকুল মিয়াসহ ঐ অসহায় পরিবারের ৭ জনকে গুরুতর আহত করে। হামলাকারীরা দোকান ৩টির মালামাল, নগদ টাকা, ঘর-দরজাসহ সব কিছুই লুটপাট করে জায়গা জবর দখল পূর্বক দুলাল গণ-জাগরণী সংঘ ও পাঠাগার নামে একটি সংগঠনের গৃহ-নির্মাণের তৎপরতা চালাচ্ছে। হামলাকারীদের মারপিটে আহত দোকান মালিক মুকুল মিয়া, নয়া মিয়া, দুলা মিয়া, জলি বেগমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করেন গাইবান্ধা সদর আধুনিক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সেখানে মুকুল মিয়া, নয়া মিয়া, দুলা মিয়া ও জলি বেগম চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অন্যান্যরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এরপর ঐ পরিবারে প্রকাশ্য হুমকী ও হামলা চালিয়ে আরও ব্যাপক ক্ষতি সাধন করাসহ অসহায় পরিবারের লোকজনকে একঘরে করে রেখেছে হামলাকারীরা। এসব কথা জানিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পক্ষে নয়া মিয়ার মেয়ে নার্গিস বেগম ও নাসরীন আক্তার কান্না বিজড়িত কন্ঠে হামলাকারীদের তান্ডবের বর্ণনা দিয়ে ন্যায় বিচারার্থে প্রশাসনের আশু-হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। তারা অভিযোগ করে বলেন, দুর্বৃত্তদের পরিকল্পিত হামলায় পরিবারের পুরুষদের আহত করার পর এখন ঘর-বাড়িতে হামলা করাসহ নানান প্রকারের হুমকী-ধামকি দিয়ে পরিবারের নারী ও শিশুদেরকে একঘরে করে রেখেছে। তাদের পক্ষে কোন মামলা হচ্ছে না। ফলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে অভিযোগ করে পরিবারের সার্বিক নিরাপত্তার দাবি জানান। এনিয়ে আঃ রাজ্জাক গং জানান, আমরা কারো ব্যক্তিগত জায়গা জবর দখল করি নাই।
থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহিল জামান জানান, নয়া মিয়া, দুলা মিয়া, মুকুল মিয়ার পক্ষে কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ এলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আল-মারুফ জানান, অভিযোগ পেয়ে তাদেরকে থানায় মামলা করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 1
    Share


এই বিভাগের আরো খবর