• শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English

আপোষের ৩৬ বছর পর জায়গা দখলের হুমকির অভিযোগ

এম.এ.জলিল রানা, ‘জয়পুরহাট
প্রকাশ হয়েছে : শনিবার, ২৭ জুন ২০২০ | ২:৩১ pm
                             
                                 

আপোষের ৩৬ বছর পর জায়গা দখলের হুমকির অভিযোগ শাহজান চৌধুরীর বিরুদ্ধে।জায়পুরহাট জেলা সড়ক ও জনপদ বিভাগে কম্পিউটার অপারেটর পদে কর্মরত আব্দুল হান্নান দালিলিখ প্রমান পত্রসহ তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন ।

তিনি বলেন ,বগুড়া জেলার দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়া চৌধুরী পাড়ায় আমার গ্রাম-প্রতিবেসী একই গ্রামের মজিবর রহমান চৌধুরীর ছেলে শাহজান আলী চৌধুরী এবং মৃত্যু আ: গফুর চৌধুরীর ছেলে মজিবর রহমানের সঙ্গে আমার বাড়ীর সীমানা প্রাচীর নিয়ে ভূল বুঝা-বুঝি-কলহ এবং বিরোধ বিবাদের সৃষ্টি হয় বিগত ১৯৮৫ সালে । এক পর্যায় তারা আমাকে প্রাণনাশের হুমকিসহ সীমানা প্রাচীরসহ জায়গা অবৈধভাবে জবর দখলের অপচেষ্টা চালায়। তৎকালীন আমি ও আমার পরিবারের সার্বিক নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে আমি আদালতে দখল বাজ অপচেষ্টাকারীদের বিরুদ্ধে ৭ ধারা মামালা রুজু করি ।আসামীরা নিজেদের দোষ স্বীকার করে আদালতে মুচলেকা নামা সহি করে। এবং পরর্বতী ২৯/৬/১৯৮৫ ইং তারিখে বাদী-বিবাদী একমত হইয়া সরকারী ফলিও কাগজে আপষনামা হয় । সেখানে বলা হয় আমরা পরস্পর আত্বীয় ।

বিবাদীর বাড়ীর পশ্চিম উত্তর-দক্ষিন লম্বা মাটির প্রাচীর নিয়ে দীর্ঘদিন ভুলবুঝা-বুঝি এমনকি মামলা মোকর্দমা চলিতেছে । উভয় পক্ষ সীমানা পিলারের মধ্য স্থান হতে উভয় দিকে দেড় ফুট পরিমান জায়গা ছাড়িয়া নিজ নিজ নির্মান কাজ করিবে।আপষে আরো বলা হয় এই আপষের ফলে উভয় পক্ষের মধ্যে পূর্বের সকল প্রকার মামলা মোকর্দমা যা আছে তাহা নিজ নিজ দায়িত্বে প্রত্যাহার করিয়া লইবে। ভবিষ্যতে এই বিষয় নিয়ে কোন পক্ষই আর মামলা-মোকর্দমা করিতে পারিবে না করিলে তাহা আইনতঃ অগ্রায্য হইবে ।

অথচ ৭ ধারা মামলায় অভিযুক্ত একজন মজিবর রহমান মারা গেছেন আর অপর জন শাহজান চৌধুরী তিনি আপষের ৩৬ বছর পর আবারো নানা রকম ভয়-ভীতি প্রদর্শন ও মামলা-হামলার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে।সে কারনে অভিযোগকারী আব্দুল হান্নান স্থানীয় পৌর-মেয়র ও প্রশাসনের নিকট উল্লেখিত সীসানা-প্রাচীর জায়গা জবর-দখল অপচেষ্টাকারী শাহজান চৌধুরীর বিরুদ্ধে শাস্তির দাবি জানান ।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 13
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর