• রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৪৫ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম

ফাগুনের আগুন লেগেছে শিমুল বাগানে

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, হাওরাঞ্চল, সুনামগঞ্জ
প্রকাশ হয়েছে : বুধবার, ৩ মার্চ ২০২১ | ৬:৪৯ pm
                             
                                 

ঋতুরাজ বসন্তের আগমনের সাথে সাথে ফাগুনের আগুন লেগেছে দেশের বৃহৎ শিমুল বাগানে। সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের মানিগাঁও গ্রামে ৩৩ একর জায়গা জুড়ে এই বাগানটির অবস্থান। তবে এই বাগানের পাশেই রয়েছে পাহাড়ি নদী যাদুকাটা। তার পাশে অবস্থিত মেঘালয় পাহাড়। তাই এখানকার প্রকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য লক্ষলক্ষ পর্যটক প্রতিদিন দেশ-বিদেশ থেকে ছুটে আসছে। কিন্তু যাতাযাত ও থাকা-খাওয়ার সুব্যবস্থা না থাকার কারণে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয় পর্যটক ও দর্শনার্থীদেরকে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়- ২০০২সালে বাদাঘাট ইউনিয়নের প্রয়াত চেয়ারম্যান হাজী জয়নাল আবেদীন তার নিজের ৩৩একর জায়গায় বাণিজ্যিক উদ্দেশ্য নিয়ে প্রায় ৩হাজার শিমুল গাছ রোপন করেছিলেন। তখনকার সময় এই বাগানের তেমন কোন কদর ছিলনা। কারণ শিমুল বাগানটি তার রুপ ও যৌবন প্রকাশ করতে তখন সক্ষম হয়নি। তখন শিমুল গাছগুলো ছিল ছোট। তাই খুব যতœ সহকারে চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন নিজে বাগানটিকে সব সময় পরিচর্যা করতেন। এভাবে বহুদিন কেটে যাওয়ার পর এই বাগানের প্রতিষ্টাতা জয়নাল আবেদীন সড়ক দূর্ঘটনায় মারা যান। তারপর থেকে শিমুল বাগানটি তার নিজ গতিতে বেড়ে উঠে। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে শিমুল বাগানটি তার প্রাকৃতিক রুপ দেখাতে শুরু করে। বর্তমানে বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের শুরু থেকেই বাগানের প্রতিটি শিমুল গাছে লাল লাল ফুল ফোটা শুরু করে। তারই আকর্ষনে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটক ও দর্শনার্থীরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে প্রতিদিন শিমুল বাগানে গিয়ে ভীড় জমান।
এই শিমুল বাগানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখে মুগ্ধ হয়ে দৈনিক সুনামগঞ্জ প্রতিদিন পত্রিকার বার্তা সম্পাদক বাউল আল-হেলাল বলেন- বাগানের লাল শিমুল ফুল দেখে মন ভরে যায়। প্রকৃতি যে কত সুন্দর এখানে না আসলে তা বুঝা যায়। ঢাকা থেকে আগত পর্যটক আশরাফ আহমেদ ও তার স্ত্রী মনিরা আহমেদ বলেন- টেলিভিশন ও পত্রিকায় শিমুল বাগান নিয়ে সব সময় সংবাদ দেখি। তাই বাস্তবে দেখার জন্য স্বপরিবারে চলে এসেছি। কিন্তু যাতায়াত ব্যবস্থা খুবই নাজুক হওয়ার কারণে কষ্ঠ হয়েছে।
শিমুল বাগানের প্রতিষ্টাতা প্রয়াত হাজী জয়নাল আবেদীনের ছেলে বাদাঘাট ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান আফতার উদ্দিন বলেন- কখনোই ভাবিনি আমার মরহুম পিতার এই শিমুল বাগানটি মানুষের মনে এতটা আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে। আমি চেষ্টা করছি আমার বাবার এই বাগানটি আরো আর্কষনীয় করে তোলার জন্য।

সংবাদটি শেয়ার করুন
  • 37
    Shares


এই বিভাগের আরো খবর