• মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন
  • বাংলা বাংলা English English
শিরোনাম
নৌবাহিনীর প্রথম নৌপ্রধান ক্যাপ্টেন নুরুল হক মারা গেছেন পরীক্ষা ছাড়াই এইচএসসির ফল প্রকাশে সংশোধিত আইনের গেজেট জারি কমলনগর থানার নবাগত ওসি মোসলেহ উদ্দিন অভিনব কায়দায় লুকিয়ে রাখা ফেনসিডিলসহ প্রাইভেটকার জব্দ, আটক ৪ কাউন্সিলর প্রার্থী হয়েছেন ভিক্ষুক সমিতির সভাপতি! মাধবপুরে বাজারে নির্বাচনী পোস্টার নিজ হাতে পরিস্কার করেন নির্বাচিত মেয়র ধর্মপাশায় প্রাণিজ পুষ্টি নিরাপত্তা ও আত্মকর্মসংস্থানে প্রাণি সম্পদের ভূমিকা শীর্ষক সেমিনার সরিষাবাড়ীতে সতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী হামলার শিকার বাগেরহাটে দরিদ্র অসহায় মানুষের জন্য ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স মধুপুরে গারো আদিবাসীদের উচ্ছেদের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন
/ মুক্তমত
পরিবেশ প্রকৃতি, জীব বৈচিত্র, জলবায়ু পরিবর্তন ও বন্য প্রানী সুরক্ষায় লড়াকু সংগঠন save the nature of Bangladesh এর কুমিল্লা জেলা আংশিক কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে।গত ১৩জানুয়ারী এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে -বিস্তারিত
ক্ষমা মহত্বের লক্ষণ। পরম করুণাময় আল্লাহ ক্ষমাকে অত্যন্ত পছন্দ করেন। প্রতি মুহুর্তে আমরা কতো অপরাধ করে যাচ্ছি। শাস্তি দিলে বাঁচার কোনো উপায় নেই। অত্যন্ত অনুকম্পা, অনুগ্রহ, দয়া দিয়ে তিনি আমাদেরকে
এ গ্রেনেড হামলার লক্ষ্যটি এমন ছিল: শেখ হাসিনাকে হত্যা করে দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে নির্মূল করা। এটি বাংলাদেশের মাটিতে সবচেয়ে ন্যাক্কারজনক সন্ত্রাসী হামলার একটি ছিল। এটি ছিল সবচেয়ে ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী হামলা,
বাঙালি জাতীয়তাবাদ, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র আর ধর্মনিরপেক্ষ দর্শনে দেশের সংবিধানও প্রণয়ন করেছিলেন স্বাধীনতার স্থপতি সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব। শোষক আর শোষিতে বিভক্ত সেদিনের বিশ্ববাস্তবতায় বঙ্গবন্ধু ছিলেন শোষিতের পক্ষে। জাতির
১৯৪৯ সালের ১৮ আগষ্টের নানকার বিদ্রোহ সিলেট অঞ্চলের রাজনৈতিক ইতিহাসে একটি অনন্য ও শাসক শ্রেণীর বিরুদ্ধে প্রজা সাধারণ তথা জনসাধারণের অধিকার আদায়ের অন্যতম লড়াই-সংগ্রাম। এই বিদ্রোহ সিলেটের বিভিন্ন অঞ্চলের নিম্নবিত্ত,
হৃদয়বিদারক ১৫ আগস্টের কালরাত স্বচক্ষে দেখেছেন। বেঁচে যাওয়া মানুষগুলো প্রতিদিন মৃত্যুর কবলে পড়ে আবার বেঁচেছেন। ইতিহাসের জঘন্য সেই হত্যাকাণ্ডের গা শিউরে ওঠা ঘটনা ও পরবর্তী সময়ে তাদের নির্বাসিত উন্মূল জীবনের
ঈদ মানে আনন্দ, একে অপরের সাথে কুশল বিনিময় করা। সমস্ত দ্বিধা দ্বন্দ্ব ভুলে সমস্ত মুসলিম জাতি এক হয়ে যাওয়া। তাইতো প্রতিবছর অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় থাকি এই ঈদের জন্য। কিন্তু এবছর
ঈদ মানে আনন্দ। ঈদ মানে খুশি। পরিবার-পরিজন নিয়ে ঈদ উদযাপন করার মাঝেই ঈদের স্বার্থকতা খুঁজে পান ছোট-বড় সবাই। তবে অন্যরা সবাই যখন ঈদের আনন্দ উদযাপনে ব্যস্ত, তখন সাংবাদিকরা ব্যস্ত পেশাদারিত্বে।